• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভোলায় কিস্তি দিতে দেরি হওয়ায় গ্রাহককে মারধর ও হয়রানীর অভিযোগ

  ভোলা প্রতিনিধি

২৫ জুলাই ২০২০, ১০:৫৪
ভোলা
হয়রানীর শিকার হওয়া গ্রাহক

ভোলায় কিস্তি দিতে দেরি হওয়ায় মারধর, নির্যাতন ও অশোভন আচরণ করার অভিযোগ উঠেছে রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের বিরুদ্ধে। ঋণ দিয়ে গ্রাহকদের মারধর ও হয়রানীর করায় রশ্মি মাল্টিপারপাস বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে ভুক্তভোগী গ্রাহকরা। তবে রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এর পরিচালক মো. রাকিব হোসেন।

অভিযোগ সূত্রে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ভোলার বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি বিল্ডিংয়ে ‘রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড’ অফিস খুলে গ্রাহকদেরকে ঋণ দিচ্ছে। এই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা ওই এলাকার বেপারী বাজারে গিয়ে স্থানীয়দেরকে ঋণ দেওয়ার ব্যাপারে অবহিত করেন। তাদের কথার প্রলোভনে পরে জাহাঙ্গীর, কামাল, মো. ফারুক, শরীফসহ একাধিক গ্রাহক রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড থেকে ঋণ গ্রহণ করে। ঋণ গ্রহণ করার পরের দিন থেকে প্রতিদিন কিস্তি দিতে থাকে গ্রাহকরা। সমস্যায় পরে একদিন কিস্তি দিতে দেরি হলে রশ্মি মালিপারপাসের লোকজন ৩/৫ হোন্ডা নিয়ে বাড়িতে গিয়ে মহিলাদের সাথে অসভ্য আচরণ ও হুমকি ধার্মিক দেয়। এ কারণে অনেক গ্রাহক টাকা পরিশোধ করে তাদের সাথে লেনদেন বন্ধ করে দেয়।

গ্রাহকদের মধ্যে বেপারী বাজারের ক্ষুদ্র পানের দোকানদার প্রতিবন্ধী কামাল হোসেন ২৪ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। ৪ মাসে তাকে সুদ সহ ৩৫ হাজার টাকা পরিশোধ করতে হবে এই মর্তে প্রতিদিন সে কিস্তি দিয়ে যাচ্ছিলো। তার কিস্তির প্রায় পরিশোধ হয়ে গেছে। কিন্তু করোনাকালীন সময়ে ব্যবসায় মন্দ হওয়ায় মাঝে মধ্যে ২/১ কিস্তি দিতে না পাড়ায় কামালকে অফিসে ডেকে নিয়ে মারধর করে রশ্মি মাল্টিপারপাসের লোকজন। পরে সে বিষয়টি ভোলা থানা পুলিশকে জানায়। পত্রিকা অফিসে এসে সাংবাদিকদের মারধরের বিষয়টি জানালে সাংবাদিকরা গত ২০ জুলাই বেপারী বাজারে ঘটনাস্থলে গেলে একাধিক ভুক্তভোগী এসে ঝড়ো হয়। এসময় তারা রশ্মি মালিপারপাসের ঋণের নামে হয়রানীর বর্ণনা দিতে থাকে। ভুক্তভোগীরা স্লোগানে স্লোগানে রশ্মি মাল্টিপারপাস বন্ধের দাবি করে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

এসময় তারা বলেন, ভোলার বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল বাস স্ট্যান্ডের কাছে রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠা হয়। রশ্মি মাল্টিপারপাস আমাদেরকে প্রলোভন দেখিয়ে ঋণ দেয়। ২/১ কিস্তি দিতে দেরি হলে ৩/৪টি হোন্ডা নিয়ে বাড়িতে এসে মহিলাদের সাথে অশোভন আচরণ করে এবং হুমকি ধমকি দেয় এবং গ্রাহকদেরকে অফিসে ডেকে নিয়ে মারধর করে। তাদের এই হয়রানীর কারণে অনেক গ্রাহক লেনদেন বন্ধ করে দেয়। ভুক্তভোগীরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড বন্ধ ও সংশ্লিষ্টদের শাস্তির দাবি জানান।

তবে বক্তব্য নেওয়ার জন্য রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের অফিসে গেলো অফিসটি তালাবন্ধ পাওয়া যায়। পরে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে রশ্মি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড এর পরিচালক মো. রাকিব হোসেন তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন।

আরও পড়ুন : ভোলায় ৫শ’ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

তিনি বলেন, আমরা কোন গ্রাহককে হয়রানী কিংবা মারধর করেনি। আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক এই অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আপনারা নিউজ করেন, নিউজ করে কি হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড