• শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পর্যটন শিল্প রক্ষায় বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার দাবি

  সারাদেশ ডেস্ক

১২ জুলাই ২০২০, ১৭:২৬
পর্যটন শিল্প রক্ষায় বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার দাবি
পর্যটন শিল্প রক্ষায় বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার দাবি

করোনাকালীন সঙ্কট কাটিয়ে পর্যটন শিল্পের গতি সচল রাখতে কক্সবাজারের জন্য সরকারের বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ দাবি করেছে সৈকত নগরীর ব্যবসায়ী সংগঠন ও প্রতিনিধিরা। তাদের দাবি, সরকার ঘোষিত কোভিড-১৯ সিএমএসএমই প্রণোদণা প্যাকেজ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোকে সহযোগিতামূলক ভূমিকা রাখতে হবে। এমনটি হলে স্থানীয় উদ্যোক্তারা এই প্যাকেজের সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন।

শুক্রবার (১০ জুলাই) কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্সের আয়োজনে বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনসমূহের নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নের ওপর এক ভার্চুয়াল সভায় এ দাবি জানানো হয়।

সভায় কক্সবাজার হোটেল মালিক সমিতি, জেলা রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি, চিংড়ি পোনা হ্যাচারি মালিক সমিতি, শুঁটকি ব্যবসায়ী সমিতি, লবণ মিল মালিক সমিতি, ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠন ও প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজের ওপর আলোচনা করেন আবু মোরশেদ চৌধুরী খোকা। আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা সরকারের প্যাকেজ বাস্তবায়ন ও করোনা সঙ্কট কাটিয়ে উঠার ক্ষেত্রে কিছু দাবি তুলে ধরেন। তা হলো- করোনাকালীন সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে কক্সবাজার পর্যটন খাতের জন্য বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা, জেলার স্থানীয় ব্যাংকসমূহে ‘হেল্প ডেস্ক’ চালু করা; যাতে সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজের ওপর প্রয়োজনীয় সব তথ্য পেতে পারে, লবণ চাষিদের রক্ষার জন্য কক্সবাজার জেলার অধীনে ‘লবণ উন্নয়ন বোর্ড’ গঠন করা এবং লকডাউন তুলে নিয়ে সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাই যাতে তাদের অর্থনৈতিক কার্যক্রম ও ব্যবসাসমূহ চালু করতে পারে তার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী খোকার সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল আলোচনায় বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার-২ আসনের এমপি আশেক উল্লাহ রফিক, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স সভাপতি মো. মাহাবুব আলম, প্রিমিয়ার ব্যাংকের উপদেষ্টা সাবেক এমডি এসআইবিএল ও ইউসিবিএল মোহাম্মদ আলী, এসএমই ফাউন্ডেশনের জেনারেল ম্যানেজার নাজিম হাসান সাত্তার ও বিসিকের উপ-মহাব্যবস্থাপক মুহাম্মদ হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেন, ট্যুরিজমকে প্রমোট করার জন্য সব উদ্যোগ কক্সবাজারকেন্দ্রিক নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু করোনা সঙ্কট এক্ষেত্রে অচল অবস্থার সৃষ্টি করেছে। এক্ষেত্রে সরকারের ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের কার্যকর বাস্তবায়ন দরকার এবং ব্যাংকগুলো যদি তাদের সহযোগিতা নিশ্চিত করে তাহলে কক্সবাজারের পর্যটন খাত, স্থানীয় উদ্যোক্তা সবাই উপকৃত হবেন। সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, কক্সবাজার মূলত পর্যটননির্ভর অর্থনীতির ওপর চালিত। এর সঙ্গে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড জড়িত। করোনার কারণে এসব বন্ধ রয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ব্যবসা কার্যক্রম আবার চালু হতে পারে। আমরা এ বিষয়ে স্থানীয় সবার সঙ্গে আলাপ করতে পারি।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, পর্যটন খাতের সঙ্গে পরোক্ষভাবে প্রায় তিন লাখ মানুষ জড়িত। যারা এ মুহূর্তে বেকার। এদের জীবন-জীবিকার কথা আমরা চিন্তা করছি। ব্যাংকগুলোর সঙ্গে আমরা কথা বলতে পারি; যাতে তারা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা করে এবং তারা ব্যবসা শুরু করতে পারে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড