• শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যৌতুকের দাবিতে দুধের শিশুকে বিক্রি, মাকে নির্যাতন

  সারাদেশ ডেস্ক

১৪ জুন ২০২০, ১৮:২২
যৌতুকের দাবিতে দুধের শিশুকে বিক্রি, মাকে নির্যাতন
নির্যাতনের শিকার নারী (ছবি : সংগৃহীত)

যৌতুকের হিংস্র থাবা নিঃশেষ করে দিচ্ছে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার সিলিমপুর ইউপির খারজানা এলাকার এক গৃহবধূর জীবন। যৌতুকের দাবিতে স্বামী এমনই পাষণ্ড হয়ে উঠেছেন যে, নিজের দেড় মাসের শিশুকে বিক্রি করে দিতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেননি। তারপরও মেটেনি তার যৌতুকের ক্ষুধা। সে জ্বালা মেটাতে প্রতিদিন পাষণ্ড স্বামী শারীরিক নির্যাতন চালাচ্ছেন তার স্ত্রীর ওপর।

যৌতুকের দাবিতে অমানসিক নির্যাতনের শিকার সে গৃহবধূ বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে গৃহবধূর মা বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় গৃহবধূর স্বামীকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের নামে নারী নির্যাতন মামলা করেছেন। যদিও এখন পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

ওই গৃহবধূ জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন আগে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার সিলিমপুর ইউপির খারজানা এলাকার বিশা মিয়ার ছেলে আশরাফের সঙ্গে বিয়ে হয় তার। বিয়ের পর তাদের সংসার কিছুদিন ভালোই কাটছিল। কিন্তু সেই সুখ স্থায়ী হলো না। কিছুদিনের মাথায় তাদের সংসারে অভাব অনটন দেখা দেয়। মূলত এরপর থেকেই বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক এনে দেওয়ার কথা বলে প্রতিনিয়তই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায় স্বামী আশরাফ।

তিনি আরও জানান, যৌতুক এনে দিতে না পারায় একপর্যায়ে ছয় মাস আগে তার দেড় মাসের শিশুকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়। তাতেও ক্ষান্ত হয়নি ওই পাষণ্ড স্বামী। গত শুক্রবার (১২ জুন) গৃহবধূকে আবারও তার বাবার বাড়ি থেকে ২ লাখ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে। টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় পাষণ্ড স্বামী তার বড় ভাইসহ পরিবারের অন্যান্যরা তাকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন চালায়।

স্থানীয়রা তাদের বাধা দিলেও তারা কোনো কথা শুনেননি। পরে স্থানীয়রা নির্যাতনের ভিডিও ধারণ করে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে দেখালে চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে এসে গৃহবধূকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে মারাত্মক আহত অবস্থায় ভর্তি করেন।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসকের মৃত্যু

স্থানীয় চেয়ারম্যান সাদিক আলী এ নির্যাতনের ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ওই পাষণ্ড স্বামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।টাঙ্গাইল মডেল থানার ওসি মীর মোশাররফ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড