• সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের বাড়িতে ডাকাতি

  মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি

৩১ মে ২০২০, ২২:১০
মুন্সিগঞ্জ
গভীর রাতে ৭ থেকে ৮ জন ডাকাত সদস্য বাড়িতে প্রবেশ করে। ওই বাড়িতে থাকা

মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগের জ্যৈষ্ঠ সহ-সভাপতি আনিছ উজ্জামানের বাড়িতে ডাকাতির অভিযোগ উঠেছে। এসময় প্রায় ৫০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট হয় হয়েছে বলে দাবি করেছে তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

শনিবার (৩০ মে) দিবাগত রাত দুইটা থেকে ভোরচারটা পর্যন্ত আ.লীগ নেতার শহরের মধ্য কোর্টগাও এলাকার বাড়িতে এই ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ওই পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, গভীর রাতে ৭ থেকে ৮ জন ডাকাত সদস্য বাড়িতে প্রবেশ করে। ওই বাড়িতে থাকা দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ডাকাতরা প্রথমে আনিছ উজ্জামানের বড় ছেলে জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি আক্তারুজ্জামান রাজিব এর ঘরে প্রবেশ করে। সেখান থেকে মালামাল নিয়ে ছোট ছেলে জালালউদ্দিন রুমি রাজনের শোবার ঘরে প্রবেশ করে এবং পরবর্তীতে আনিছ উজ্জামানের ঘরে ঢোকে।

এসময় ডাকাতরা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ১০০ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৫ লক্ষ টাকা লুট করে বলে পুলিশের কাছে দাবি করেছে আনিছ উজ্জামানের পরিবার।

এ ঘটনার পর থেকে আনিছ উজ্জামান ও তার ছেলেদের মুঠোফোন বন্ধ রয়েছে।

তবে স্থানীয়দের দাবি, আনিছ উজ্জামানদের বাড়িতে গিয়ে ডাকাতি করবে এমন সাহস কারো নেই। এছাড়া এত স্বর্ণালঙ্কারইবা কোথা থেকে, কিভাবে আসলো সেটাও সন্দেহজনক। এ ঘটনার পেছনে অন্য কোন ঘটনা থাকতে পারে।

এ বিষয়ে মুন্সিগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গাজী সালাহ্উদ্দিন শনিবার বিকেলে বলেন, ঘটনাটি জানার পরই সেখানে যাই। পুলিশ গুরুত্বের সাথে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। এখনো কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড