• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নোয়াখালীতে করোনায় একজনের মৃত্যু

  সারাদেশ ডেস্ক

২৬ মে ২০২০, ১৮:৩৩
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভায় করোনায় আক্রান্ত এক ব্যক্তি (৭৪) মারা গেছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছেন তার ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মৃত ব্যক্তি চৌমুহনী পৌরসভার পশ্চিম গণিপুর এলাকার বাসিন্দা ছিলেন।

বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার দাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, করোনা উপসর্গ থাকায় পশ্চিম গণিপুরের এ বাসিন্দা ও তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে নমুনা দিয়েছিলেন। গত ২১ মে তাদের দুজনের করোনা পজিটিভ আসে। পরবর্তীতে তাদের দুইজনকে নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়। দুপুরে ৭৪ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি মারা যান। সকল ধরনের নিয়ম মেনে স্থানীয় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তার দাফনের দায়িত্ব নিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আজ উপজেলায় নতুন করে আরও ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তার মধ্যে বেশির ভাগই চৌমুহনী পৌরসভার বাসিন্দা।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলায় মোট আক্রান্ত ৪১৪ জন। বেগমগঞ্জে ২২৪, কবিরহাটে ৫৪, সদরে ৫২, চাটখিলে ৩০, সোনাইমুড়ীতে ১৮, সুবর্ণচরে ১২, সেনবাগে ১১, কোম্পানীগঞ্জে ৭ ও হাতিয়ায় ৬ জন রোগী রয়েছে। যাদের মধ্যে মারা গেছেন সোনাইমুড়ীতে মোরশেদ আলম (৪৫) নামে এক ইতালি প্রবাসী, সেনবাগে এক রাজমিস্ত্রি মো. আক্কাস (৪৮), বেগমগঞ্জে তারেক হোসেন (৩০) ও আমিনুল ইসলাম মিন্টু (৪৭) নামে দুই ব্যবসায়ী, সোনাইমুড়ীতে ফখরুল ইসলাম বাচ্চু (৫৯) নামের এক কৃষক, বেগমগঞ্জের কুতুবপুরে শহিদুর রহমান (৬৬), চৌমুহনী পৌরসভা করিমপুরের বেলাল উদ্দিন (৫৭) এবং চৌমুহনী পৌরসভার পশ্চিম গণিপুর আবুল খায়ের পাটোয়ারী (৭৪)। সুস্থ হয়েছেন ২৯ জন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড