• সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মুন্সিগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট, চিকিৎসক ও চেয়ারম্যানসহ ২৭ জন করোনা আক্রান্ত

  মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি

১৪ মে ২০২০, ২০:১৫
মুন্সিগঞ্জ
ছবি : সংগৃহীত

মুন্সিগঞ্জের সদর,  টংগিবাড়ী, গজারিয়া ও সিরাজদিখান উপজেলায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, চিকিৎসক , মৎস্য কর্মকর্তা, চেয়ারম্যানসহ  নতুন করে আরও ২৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩৩১ জনে। এরমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৪ জন ও মৃত ১২ জন রয়েছেন। করোনা পরীক্ষার ফলাফলের অপেক্ষায় রয়েছেন আরও ৩৭৫ জন।

বৃহস্পতিবার (১৪ মে) দুপুর আড়াইটার দিকে এসব তথ্য দৈনিক অধিকারকে নিশ্চিত করেছেন মুন্সিগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ।

সিভিল সার্জন জানান, গত ১১ ও ১২ মে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড সোশ্যাল মেডিসিনে (নিপসম)  পাঠানো নমুনার মধ্যে ১২৪ জনের ফল এসেছে। সেখানে ২৭ জনের করোনা পজিটিভ হওয়ার কথা জানানো হয়। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের ১৫জন রয়েছেন । এখন পর্যন্ত চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায় ৭৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে, সদর উপজেলা ৭ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৪ জন, টংগিবাড়ী উপজেলায় ১২ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

এরমধ্যে সদর উপজেলায় একজন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (৪০), মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের নারী চিকিৎসক (৩১), শহরের উত্তর ইসলামপুর এলাকার মা (৪০) ও কন্যা (২০), কাটাখালী গ্রামের পুরুষ (৪৫), শহরের সরকারি কোয়াটারের গৃহকর্মী (৫৫) এবং মালিপাথর গ্রামের পুরুষ (৬০) রয়েছেন।

টংগিবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (৪৮), আরএমও (৩৮), দুইজন মেডিক্যাল অফিসার পুরুষ (৩৬) ও (২৮), দুইজন সেকমো পুরুষ (২৭) ও (৩০), ক্যাশিয়ার (৪৪), ওয়ার্ড বয় (৪৪) গাড়ি চালক (২৩),  এমএলএস পুরুষ(৫০) , ক্লিনার পুরুষ (৩৩) ও এক পুরুষ কর্মী (৩৫)।

সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুইজন নার্স (৩০) ও (৩০)। এছাড়া উপজেলার খিদিরপাড়া গ্রামের এক নারী (৩১) ও রশওনিয়া ইউনিয়নের আরেক নারী (৩৭) রয়েছেন।

গজারিয়ায় উপজেলায় মৎস্য কর্মকর্তা (৩১), ইমামপুর ইউপি চেয়ারম্যান (৪৮), বালুয়াকান্দি ইউপি (৪৫) ও গজারিয়া ইউএনও অফিসের এক কর্মচারী (৫৪) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ বলেন, মুন্সিগঞ্জে আশঙ্কাজনকভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এর মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজনও দ্রুত আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন। আক্রান্তের বিষয় নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। তবে আশার কথা হচ্ছে যারা পূর্বে আক্রান্ত হয়েছিলেন তারা সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন। বাকিদেরও অবস্থা ভালো আছে।

তিনি পরামর্শ হিসেবে বলেন, কারো মধ্যে সামান্য পরিমাণে উপসর্গ দেখা দিলে অথবা সন্দেহ হলে চিকিৎসকের পরামর্শসহ করোনা পরীক্ষা করতে হবে। নমুনা দেওয়া পাশাপাশি আইসোলেশনে থাকতে হবে। রোগীর স্বজনদেরও সচেতন হতে হবে। জেলার সকল মানুষ সরকারি নির্দেশনা গুলো মেনে চললে রোগটিকে প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। 

এছাড়া করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকা, রমজানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, বেশি বেশি পানি ও তরল জাতীয় খাবার, ভিটামিন সি ও ডি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া, টাটকা ফলমূল ও সবজি খাওয়াসহ শরীরকে ফিট রাখতে নিয়মিত হালকা ব্যায়াম এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানান এই কর্মকর্তা।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানাযায়, আজ ১৩৭ জনসহ জেলার মোট ২ হাজার ৫৯ জনের নমুনা এ পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে এক হাজার ৬৮৪ জনের নমুনার ফল পাওয়া গেছে। এ পর্যন্ত সদর উপজেলায় ১৩৭ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ২৮, সিরাজদিখান উপজেলায় ৫৪, শ্রীনগর উপজেলায় ৪১ জন, লৌহজং উপজেলায় ৩৭ জন এবং গজারিয়া উপজেলায় ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে। এর মধ্যে সদরে একজন স্বাস্থকর্মীসহ সাতজন, টংগিবাড়ীতে দু’জন ও শ্রীনগর উপজেলায় একজন ও লৌহজং উপজেলায় একজন করোনা সনাক্ত হওয়ার আগেই মারা যান। তবে লৌহজং উপজেলায় আরেকজন করোনা নিয়ে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

এদিকে, নতুন করে সিরাজদিখান উপজেলায় করোনামুক্ত হয়েছেন ৪ জন । এ নিয়ে জেলায় ৩৪ জন করোনামুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এর মধ্যে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ৮ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১২ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৮ জন, টংগিবাড়ী উপজেলায় ৪ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ২ জন রয়েছেন।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড