• বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনা নেই, অথচ চিকিৎসা না পেয়ে ব্যবসায়ীর করুন মৃত্যু

  বরিশাল প্রতিনিধি

১৪ মে ২০২০, ০৮:২৭
রাজধানী
নিহত শামীম নেওয়াজ খান

করোনা ভাইরাস পরীক্ষার রিপোর্ট না থাকায় হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন শামীম নেওয়াজ খান (৫৯) নামে একজন ব্যবসায়ী। তাকে গত ১১ মে রাজধানীর মহাখালীস্থ ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে প্রায় ৫ ঘণ্টা চিকিৎসা না পেয়ে ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পথে এ্যাম্বুলেন্সেই মর্মান্তিকভাবে মারা যান। তার মৃত্যুর পর দিন করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। ওই ব্যবসায়ী ঢাকার ১/২, ব্লক-সি, লালমাটিয়ার বাসিন্দা।

ব্যবসায়ী শামীম এর পুত্র সানিদ নেওয়াজ খান অভিযোগ করেছেন, সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে তার বাবার মৃত্যু হওয়ায় তিনি আইনি ব্যবস্থা নিবেন।

দারাজ ডট কম নামে একটি ই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত সানিদ নেওয়াজ খান বলেন, গত ১১ মে দুপুর ২টায় তার বাবাকে রাজধানীর মহাখালীস্থ ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (সাবেক আয়শা মেমোরিয়াল হাসপাতাল) নিয়ে যান। বাবা ব্যবসায়ী শামিম এর আগে থেকেই ফুসফুসে পানি জমায় ভারতে চিকিৎসা করা হয়। ফুসফুসজনিত কারণে ফের শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে ১১ মে দুপুরে হাসপাতালে নেয়া হয়।

ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আরাফাত জানান, ব্যবসায়ী শামিম হার্ট অ্যাটাক করেছেন। তাকে ২ ঘণ্টা অবজারভেসনে রাখা হবে। যদিও ২ ঘণ্টা পর হাসপাতালের জরুরী বিভাগ থেকে জানিয়ে দেয়া হয় ওই রোগীর সিসিইউ সাপোর্ট দরকার। কিন্তু রোগীর শ্বাসকষ্ট ও জ্বর থাকায় করোনা পরীক্ষা ছাড়া চিকিৎসা করানো যাবে না। মিরপুরের ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনেও যোগাযোগ করা হলেও সেখানে চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃত জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সানিদ নেওয়াজ বলেন, বাবাকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের কাছে আকুতি জানানো হয়। তাদের বলা হয় যে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে, রিপোর্টের অপেক্ষায় আছেন। কিন্তু সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত কোন চিকিৎসা সেবা দেয়নি ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এমনকি অনেকটা জোর করে রোগী নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগে বাধ্য করা হয়। যে কারণে ওই হাসপাতাল থেকে বাধ্য হয়ে রাতে ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পথে অ্যাম্বুলেন্সেই বাবা মারা যান।

পুত্র সানিদ আক্ষেপ করে বলেন, পরদিন ১২ মে বাবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে। বাবা হার্ট এ্যাটাক করলোও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিষ্ঠুরভাবে চিকিৎসা না দিয়ে কেবল অক্সিজেন দিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেলে রেখেছিল। তিনি এর বিচার পেতে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান পুত্র সানিদ।

এ ব্যাপারে ঢাকার মহাখালিস্থ ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যোগাযোগ করা হলেও কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড