• রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভাতিজাদের বিরুদ্ধে চাচাকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ

  ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

১১ মে ২০২০, ১৪:২০
নিহত
নিহত আব্দুর রাজ্জাক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ময়মনসিংহে আব্দুর রাজ্জাক (৬০) নামে এক বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তারই ভাতিজা ভাতিজাদ্বয়ের বিরুদ্ধে।

রবিবার (১০ মে) বিকালে ময়মনসিংহ কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়।

এর আগে একই দিন বেলা ১১টার দিকে জেলার গফরগাঁও উপজেলার রাওনা ইউনিয়নের চংবিরই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চংবিরই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ও তার অপর তিন ভাইয়ের একটি পৈত্রিক জমি (১০ শতাংশ) তার মৃত ভাই চাঁন মিয়ার ছেলে মাসুদ (৩০) ও জয়নাল গং (৩৫) পেশীশক্তির ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক দখল করে নেয়। এ নিয়ে রবিবার বেলা ১১টার দিকে বিরোধপূর্ণ ওই জমির পাশে আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে তার ভাতিজা মাসুদ ও জয়নালের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে মাসুদ তার চাচা আব্দুল রাজ্জাককে কিল-ঘুষি দিয়ে মাটিতে ফেলে দিয়ে তার বুকে এলোপাতাড়ি লাথি দিতে থাকে। এ সময় জয়নাল আব্দুর রাজ্জাকের গলা টিপে ধরে।

পরে চিৎকার শুনে বাড়ি থেকে আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী আসমা খাতুন (৫০) ও তার ছেলে বাশার (১৩) তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসে। এ সময় মাসুদ তার চাচী আসমা খাতুন ও বাশারকে মারধর করে। পরে মা-ছেলের চিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসলে মাসুদ ও জয়নাল পালিয়ে যায়। একপর্যায়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আব্দুর রাজ্জাককে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ কমিউনিটি বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন : ভোলার করোনা পরিস্থিতি : যোগ ৩ বিয়োগ ৩

বিষয়টি নিশ্চিত করে গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল সরকার জানান, ‘লাশ ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতিও চলছে।’

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড