• শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারীকে ধর্ষণ

  ঈশ্বরদী প্রতিনিধি, পাবনা

০৬ এপ্রিল ২০২০, ১০:০৪
ঈশ্বরদী
ছবি : সংগৃহীত

ঈশ্বরদী ইপিজেডের এক নারী কর্মীকে (১৮) ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ওই নারী বাদী হয়ে রবিবার (০৫ এপ্রিল) সকালে ঈশ্বরদী থানায় একজনের নামে মামলা করেন।

আসামি হলেন- উপজেলার পিয়ারখালী জামতলা এলাকার শ্রী অনন্ত কুমার সাহার ছেলে শ্রী অঞ্জন কুমার সাহা (২৩)। 

ঈশ্বরদী থানা-পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই নারী এক বছর আগে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ইয়ার কলোনি এলাকা থেকে এসে ঈশ্বরদী রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল (ইপিজেড) চাকরি করেন, জনৈক শামসুলের একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে বসবাস শুরু করেন। পূর্বপরিচয়ের সুযোগে অঞ্জন তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়।

অঞ্জন হিন্দু হওয়ায় বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হননি ওই নারী। তবে অঞ্জন ও তাঁর পরিবার ইসলাম ধর্ম গ্রহণের আশ্বাস দিলে ওই নারী বিয়েতে রাজি হন। এ সুযোগে অঞ্জন বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি ও ফোনালাপ শুরু করেন ওই নারীর সঙ্গে। 

শনিবার (০৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীকে জামতলা এলাকার এক বাড়িতে নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় রবিবার ভিকটিম থানায় অভিযোগ করেন।

এ বিষয়ে ওই নারী কর্মীর অভিযোগ, ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানালে তাঁকে দেখে নেবেন বলে হুমকি দেন। সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে রাতেই তিনি তাঁর বাবাকে পুরো ঘটনা জানান। পরদিন সকালে তার এক সহকর্মীকে সঙ্গে নিয়ে ঈশ্বরদী থানায় গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন তিনি।

ঈশ্বরদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার রবিবার রাতে জানান, নারী কর্মীর লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে অঞ্জন কুমার সাহার বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করা হয়। আসামিকে ধরতে অভিযান চলছে। ওই নারীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড