• বৃহস্পতিবার, ০৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাস্তায় পড়ে থাকা সেই ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত  

  সারাদেশ ডেস্ক

০৪ এপ্রিল ২০২০, ১৯:৪২
অধিকার
ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা থেকে রংপুরের উদ্দেশে একটি ট্রাক রওনা দেয়। যাওয়ার পথে হঠাৎ করে ট্রাকটি বগুড়া বাসস্ট্যান্ডে থামে। এ সময় জ্বর ও শ্বাসকষ্ট্রে আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে রাস্তায় ফেলে রেখে চলে যায়। সেই ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এই ঘটনা ঘটে গত রবিবার (২৯ মার্চ) ভোর রাতের দিকে। 

হাসপাতাল সূত্র জানায়, বর্তমানে ওই ব্যক্তি বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন। তার নমুনা পরীক্ষার জন্য গত বুধবার  (০১ এপ্রিল) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি আছে বলে পরের দিন বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) সংশ্লিষ্টদের মৌখিকভাবে জানানো হয়। ওই ব্যক্তির সংস্পর্শ আসা শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের প্রধানসহ পাঁচজন চিকিৎসক, আটজন নার্সসহ মোট ১৬ জনকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই ব্যক্তির কাছ থেকে সবাইকে দূরে থাকার পরামর্শ দেয়।

ট্রাক থেকে বাসস্ট্যান্ডে ফেলা যাওয়ার পর ওই ব্যক্তিকে প্রথমে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে পাঠানো হয় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এখন তিনি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশনে আছেন। 

আরও পড়ুন : মিরপুরের মৃত ব্যক্তি যেভাবে করোনায় আক্রান্ত হলেন

ওই রোগীর সঙ্গে হাসপাতালে থাকা অন্য আরেক রোগী বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অন্য রোগীদের কাছ থেকে তাদের রোগীকে আলাদা করা হয়। এ ছাড়া রোগীর সংস্পর্শে না থাকার জন্যও সতর্ক করা হয়। চিকিৎসকেরা তাদের বলেছেন, রোগীর একটু সমস্যা আছে। কেউ তাঁর কাছে যাবেন না। একটু দূরে থাকবেন।

বগুড়ার মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা শফিক আমিন বলেন, ওই রোগীকে আইসোলেশনের অন্য রোগীদের থেকে আলাদা রাখা হয়েছে।

বগুড়ার সিভিল সার্জন গউসুল আজিম চৌধুরী  বলেন, ওই রোগী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কি না, আইইডিসিআর থেকে এখনো লিখিতভাবে জানানো হয়নি। 

মৌখিকভাবে জেনেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'মৌখিক কোনো বিষয় এভাবে গণমাধ্যমে বলতে পারি না। তবে শনিবার আইইডিসিআরের একটি দল বগুড়ায় আসছেন। তারা বিষয়টি স্পষ্ট করতে পারবেন।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক আবদুল ওয়াদুদ  বলেন, বুকে ব্যথা, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আসা ওই রোগীকে প্রথমে হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে কয়েক দিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় হৃদরোগ বিভাগের প্রধানসহ পাঁচজন চিকিৎসক, ৮ জন নার্সসহ ১৬ জন ওই রোগীর সংস্পর্শে এসেছেন। তার শরীরে করোনা শনাক্তের বিষয়টি গত বৃহস্পতিবার মৌখিকভাবে হাসপাতাল প্রশাসন জানতে পারে। তখন ১৬ জনকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়।

ওই রোগীর এক স্বজন বলেন, ঢাকার কারওয়ানবাজারে সবজির আড়তে কাজ করেন ৫০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি। গত ২৮ মার্চ  রাতে ট্রাকে করে রংপুরের উদ্দেশে ঢাকা থেকে রওনা দেন তিনি। ট্রাকে আরও ১৫ থেকে ২০ জন যাত্রী ছিলেন। পথে তার শ্বাসকষ্ট ও কাশি বেড়ে যায়। তখন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ট্রাক থেকে তাকে বগুড়ার শিবগঞ্জের মহাস্থান বাসস্ট্যান্ডে ফেলে যাওয়া হয়। ওই ব্যক্তিকে বাসস্ট্যান্ডে পড়ে থাকতে দেখেও কেউ এগিয়ে আসেননি। পরে পুলিশের সহায়তায় একজন ভ্যানচালককে ডেকে তার ভ্যানে তুলে হাসপাতালে নিয়ে যায়। 
 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড