• রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নিপীড়ন শেষে চরিত্রহীন বলায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা 

  শরীয়তপুর প্রতিনিধি

২৩ মার্চ ২০২০, ১৬:১৯
জেলা
জেলার ম্যাপ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

শরীয়তপুর জেলার নড়িয়ায় নিপীড়নের পর ডেকে নিয়ে চরিত্রহীন বলে সম্বোধন করায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে স্বপ্না কবিরাজ (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রী। 

সোমবার (২৩ মার্চ) দুপুরে এ ঘটনায় নড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন স্বপ্নার মা লাবনী কবিরাজ।

এর আগে, রবিবার (২২ মার্চ) দুপুরে উপজেলার বিঝারী ইউনিয়নের নীলগুণ এলাকা থেকে স্বপ্নার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

স্বপ্না কবিরাজ উপজেলার বিঝারী ইউনিয়নের নীলগুণ গ্রামের প্রবাসী বিপুল কবিরাজ ও লাবনী কবিরাজ দম্পতির মেয়ে এবং ভেদরগঞ্জ প্রতিভা সাইন্স প্রিপারেটরি স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর নীলগুণ গ্রামের লাবনী কবিরাজের বড় মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এতে ছোট মেয়ে স্বপ্নাকে প্রতিবেশী বাছারের মেয়ে প্রাপ্তি ও তার বান্ধবী জিতুর কাছে রেখে বড় মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালে যান স্বপ্নার মা। রাতে ঘরে ঘুমাতে যায় স্বপ্না। রাত আনুমানিক ১২টায় ভানু বাছারের ছেলে সুজিত (৩০) ঘুমন্ত অবস্থায় স্বপ্নাকে ধর্ষণ করে। একইসঙ্গে স্বপ্নাকে নানা রকম ভয়ভীতি দেখিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় পরিবার ছাড়া অন্য কাউকে কিছু বলেনি স্বপ্না।

এজহার থেকে আর জানা গেছে, রবিবার দুপুরে সুজিত বাছারের ভাই অজিত বাছার, ভাবি রিনা রানী ও বোন ভানু বাছার স্বপ্নাকে ডেকে নিয়ে চরিত্রহীন সম্বোধনসহ নানা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। লোকলজ্জা ও অপমানে বিকালে ঘরে থাকা সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে স্বপ্না। 

স্বপ্নার মা লাবনী জানান, সুজিতের ভাই অজিত, রিনা ও পারুল স্বপ্নাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে বলে, ‘তুই নাকি বিভিন্ন লোকজনের কাছে আমাদের বদনাম করিস। তুই নিজেই তো চরিত্রহীন। তোর স্বভাব-চরিত্র ভালো না। তুই অপকর্ম করে সুজিতের দোষ দিস। তুই গলায় দঁড়ি দিয়ে মরতে পারিস না। তুই মরলে এলাকা ভালো থাকবে।’

আরও পড়ুন : এবার বশেমুরবিপ্রবি লকডাউন 

তিনি আরও জানান, তাদের প্ররোচনাতেই আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। এর আগে, সুজিত আমার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। আমি এর বিচার চাই।

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান জানান, স্বপ্নার আত্মহত্যার ঘটনায় মা লাবনী থানায় মামলা করেছেন। মামলার আসামি অজিত বাছার ও তার মা পারুলকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

ওডি/এমআরকে

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড