• শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাজবাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টিনে ৩৫২, বিশেষ নজরদারিতে ১ হাজার

  রাজবাড়ী প্রতিনিধি

২৩ মার্চ ২০২০, ১৫:২৪
হোম কোয়ারেন্টিন
হোম কোয়ারেন্টিন (প্রতীকী ছবি)

রাজবাড়ী জেলায় এখন পর্যন্ত বিদেশ থেকে আসা ৩৫২ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৪৬ জনকে কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া জেলাজুড়ে বিশেষ নজরদারিতে রয়েছে প্রায় ১ হাজার প্রবাসী।

তবে রাজবাড়ীতে এ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার জন বিদেশফেরত এসেছেন। এদের মধ্যে বর্তমানে প্রায় ১ হাজার জন দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করছেন।

এ দিকে, ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থেকে শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি না থাকায় ইতোমধ্যেই ৪০ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ মার্চ) জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কার্যালয় থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

এরই মধ্যে গত দুই দিন আগে জেলার পাংশা উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে থাকা একজনের শরীরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কি না সোমবার এ সংক্রান্ত রিপোর্ট দেওয়ার কথা রয়েছে। তবে জেলার সবচেয়ে বেশি বিদেশফেরত রয়েছেন পাংশা, বালিয়াকান্দি ও সদর উপজেলায়।

এ দিকে, রাজবাড়ীতে ডাক্তারদের পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট ও লজিস্টিক সাপ্লাই পর্যাপ্ত না থাকায় হাসপাতালগুলোতে রোগী দেখতে অস্বস্তি প্রকাশ করছেন অনেকেই। তবে সিভিল সার্জনের পক্ষ থেকে পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্টের চাহিদা ইতোমধ্যেই ঢাকার সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে জেলা প্রশাসন, পুলিশ, সিভিল সার্জন ও বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা জনগণের সচেতনতা বাড়াতে প্রতিনিয়ত প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। পাশাপাশি সরকারি দপ্তরগুলোতে ঢুকতে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে হাসপাতালগুলোতে করোনা ভাইরাস এড়াতে করণীয় নিয়ে বিভিন্ন ধরনের পোস্টার ও ব্যানার টাঙানো হয়েছে।

আরও পড়ুন : বিয়ের দাবিতে প্রেমিক ডাক্তারের বাড়িতে স্কুলছাত্রীর অনশন

এ ব্যাপারে সিভিল সার্জন ড. নূরুল ইসলাম বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৪৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে পাংশার একজনকে দুই দিন আগে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আজ তার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট পাওয়া যাবে। তবে রাজবাড়ীর হাসপাতালগুলোতে নেই যথেষ্ট পরিমাণ পার্সোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট ও লজিস্টিক সাপ্লাই। ইকুইপমেন্টের স্বল্পতা থাকায় ডাক্তাররাও অস্বস্তি বোধ করছেন বহিরাগত ও ভর্তি রোগীদের দেখতে। এজন্য ইতোমধ্যেই পার্সোনাল ইকুইপমেন্টের চাহিদা ঢাকাতে পাঠানো হয়েছে।’

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড