• রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সুনামগঞ্জে লক্ষাধিক টাকার মাছ ও গাছের চারা লুটের অভিযোগ

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

১২ মার্চ ২০২০, ১২:২৫
সুনামগঞ্জ
ঘটনাস্থল (ছবি : দৈনিক অধিকার)

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের মঈনপুর গ্রামে এক ব্যক্তির পুকুরের মাছ লুট ও বিভিন্ন প্রজাতির কাঠ জাতীয় চারা গাছ ভেঙে নষ্ট করা হয়েছে। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার (১১ মার্চ) সকালে ক্ষতিগ্রস্ত জহুর মিয়া বাদী হয়ে মিঠু মিয়া ও তাজির মিয়াসহ অজ্ঞাত ৫ থেকে ৬ জন ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মঈনপুর গ্রামের আব্দুল সাত্তারের ছেলে মো. জহুর মিয়া তার নিজের জমিতে একটি পুকুরে প্রায় লক্ষাধিক টাকার বিভিন্ন প্রজাতির মাছের চাষ করছিলেন। এছাড়া পুকুর পাড়ের চারপাশে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারাও রোপণ করেছিলেন।

এ দিকে পূর্ব বিরোধ থাকায় একই গ্রামের মিঠু মিয়া ও তাজির মিয়া গংরা গত ১০ মার্চ গভীর রাতে পুকুরে জাল ফেলে প্রায় ৬০ হাজার টাকার মাছ ও পুকুর পাড়ের বিভিন্ন প্রজাতির আরও ৫০ হাজার টাকার গাছের চারা ভেঙে লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। খবর পেয়ে সদর মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্ত মো. জহুর মিয়া জানান, এদের অত্যাচার নির্যাতনের ভয়ে এলাকার কোনো লোকজন সরাসরি কথা বলতে রাজি নয়। তিনি দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ সুপারের নিকট দাবি জানান।

আরও পড়ুন : নির্যাতনের শিকার ছোট্ট মুসা ফিরল মায়ের কোলে

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মিঠু মিয়ার সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

সদর মডেল থানার ওসি মো. শহীদুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে, তিনি অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড