• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

খুলনায় সংঘর্ষে আহত ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

  খুলনা প্রতিনিধি

০২ মার্চ ২০২০, ১০:৩৫
খুলনা
হাদিউজ্জামান রাসেল (ছবি : সংগৃহীত)

খুলনা জেলার কয়রায় দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাদিউজ্জামান রাসেল মারা গেছেন।

সোমবার (২ মার্চ) ভোর ৬টায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মো. আবু সাঈদ খান বিষয়টি নিশ্চিত বরে বলেন, ‘সন্ত্রাসী হামলায় মারাত্মক আহত হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে সকাল ৬টা ১০ মিনিটে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেল মারা গেছেন।’

এর আগে রবিবার (১ মার্চ) বিকালে উপজেলার বাগালি ইউনিয়নের বাইলহারানিয়া এলাকায় বাতিকাটা খালে নির্মাণাধীন ব্রিজের কাজকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাদিউজ্জামান রাসেলসহ দুপক্ষের ৮ জন আহত হন। রাসেলের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে গত রাতেই খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাইলহারানিয়া গ্রামের আলিম মাদরাসার পাশে বাতিকাটা খালের ওপর নির্মাণাধীন ব্রিজের ঢালাই কাজ চলাকালে বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় হাফিজুর রহমানের তিন ছেলে তুহিন হোসেন (৪০) বাবু (৩৭) ও মিলন (৩০) শ্রমিকদের কাজ বন্ধ করে দেয়। একপর্যায়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এসে মীমাংসা করে দেয়। এরপর বিকাল ৪টার দিকে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাদিউজ্জামান রাসেল ঘটনাস্থলে আসলে ক্ষিপ্ত থাকা তুহিন, তার ভাইয়েরা ও স্থানীয়রা মিলে তার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। তার সঙ্গে থাকা ছাত্রলীগ কর্মীরা আত্মরক্ষায় পাল্টা আক্রমণ করে। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা এসে গুরুতর জখম অবস্থায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেল (২৮), ইয়াছিন আরাফাত (১৯) রাজু (২২), আব্দুল্লাহ (২৯), আবুল হাসান (২০), সেলিমসহ (৩২) কয়েক জনকে কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর অবস্থার অবনতিতে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (খুমেক) পাঠায়।

আরও পড়ুন : কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে ৭ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নিহত

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি। ঘটনার পর ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তুহিন হোসেন ও মিলনকে আটক করেছে।

ওডি/জেএস

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801721978664

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড