• শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচারের মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭:২০
যাবজ্জীবন
যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত শিপন রানা ওরফে বাবু (ছবি : দৈনিক অধিকার)

স্বর্ণ পাচারের মামলায় চুয়াডাঙ্গায় শিপন রানা ওরফে বাবু (৩০) নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন আদালত।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকালে চুয়াডাঙ্গার স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুহাম্মদ রবিউল ইসলাম আসামির উপস্থিতিতে এই রায় প্রদান করেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত শিপন রানা ওরফে বাবু দামুড়হুদা উপজেলার ঝাঁঝাডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৪ এপ্রিল ভোরে চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির একটি টহল দল দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর গ্রামে অভিযান চালায়। ওই অভিযানে গ্রামের ‘প্রগতি লাইফ ইনস্যুরেন্স’ অফিসের সামনে থেকে শিপন রানা ওরফে বাবুকে মোটরসাইকেলসহ আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে ১ কোটি ১৯ লাখ ৭৭ হাজার ২৩ টাকা মূল্যের তিনটি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন ৩ কেজি ১৭৫ গ্রাম।

ওই ঘটনায় বিজিবির নায়েক সুবেদার তোতা মিয়া বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে দামুড়হুদা মডেল থানায় স্বর্ণ পাচারের একটি মামলা করেন। মামলায় ১৯৭৪ সালের স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্টের আওতায় শিপন রানা ওরফে বাবুর বিরুদ্ধে স্বর্ণ পাচারের অভিযোগ আনা হয়।

আরও পড়ুন : জীবনের নতুন ইনিংসে সৌম্য সরকার

পরে ২০১৭ সালের ৩১ অক্টোবর দামুড়হুদা মডেল থানার ইন্সপেক্টর ইমদাদুল হক তদন্ত শেষে আলোচিত ওই স্বর্ণ পাচারের মামলায় শিপন রানা ওরফে বাবুকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে চূড়ান্ত অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

দীর্ঘ শুনানিতে আদালত মোট আট জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে শিপন রানা ওরফে বাবুকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড