• রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভিক্ষুকের সঙ্গে এ কেমন নিষ্ঠুরতা, পিটিয়ে জখম 

  ঝালকাঠি প্রতিনিধি

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৩৪
ভিক্ষুক মালেকা বেগম
ভিক্ষুক মালেকা বেগম ( ছবি : দৈনিক অধিকার )

ঝালকাঠি সদর উপজেলায় এক বৃদ্ধা ভিখারিকে পিটিয়ে জখম করেছে তার স্বজনরা। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ভিখারির নাম মালেকা বেগম (৬০)।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার বাসণ্ডা ইউনিয়নের আগড়াবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ভিখারি মালেকা বেগম সদর উপজেলার বাসণ্ডা ইউনিয়নের আগড়বাড়ি গ্রামের মো. আব্দুর রহমানের স্ত্রী। তার স্বামী অনেক বছর আগেই মারা গেছেন। এখন ভিক্ষা করেই চলে তার জীবন।

ঝালকাঠি সদর হাসপালে ভর্তি আহত বৃদ্ধা মালেকা বেগম জানান, একই বাড়িতে থাকা আপন ভাই মো. আনোয়ার হোসেন এবং ভাইয়ের ছেলে মো. আরিফ বৃদ্ধা মালেকা বেগমের ঘরের সামনে ময়লা-আবর্জনা ফেলে রাখে। এতে বাঁধা দিলে ছোট ভাই আনোয়ার ও তার ছেলে আরিফ মিলে তাকে পিটিয়ে জখম করে।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স সবুজ কান্তি সাধক জানান, আহত বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে প্রতিবেশীরা হাসপাতালের সামনে রেখে যায়। হাতে, পিঠেসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতে জখম হয়েছে। সেখান গুরুতর আহত দেখতে পেয়ে আমরা বৃদ্ধাকে হাসপাতালে এনে ভর্তি করে চিকিৎসা শুরু করি। তিনি কানে কম শুনতে পান। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করে উন্নত চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে বৃদ্ধা মালেকা বেগমকে সহযোগিতা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন: সোনারগাঁয়ে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দোকানের মালামাল পুড়ে ছাই

তবে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত পুলিশের কাছে কোনো অভিযোগ দেয়নি বলে জানান ঝালকাঠি সদর থানার পরিদর্শক তদন্ত মো. আবু তাহের মিয়া। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। 

ওডি/এসএএফ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড