• মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফরিদপুরে স্বামী-স্ত্রী হত্যার রহস্য উদঘাটন

  ফরিদপুর প্রতিনিধি

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:০৬
নিহত
নিহত রাজীব বিশ্বাস ও সোনালী বণিক স্মৃতি (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ফরিদপুরে রাজীব বিশ্বাস (৩৪) ও সোনালী বণিক স্মৃতি (২২) দম্পতির মৃত্যুর ঘটনাটি একজনকে হত্যার পর অপরজনের আত্মহত্যা বলেই মনে করছে পুলিশ। এক্ষেত্রে স্ত্রী সোনালী বণিককে মাথা থেঁতলে হত্যার পর স্বামী রাজিব বিশ্বাস নিজে আত্মহত্যা করেন বলে প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে পুলিশ। মাত্র দুই বছর আগে প্রেমের বিয়ের পর পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ফরিদপুরে এসে সংসার পাতেন নিহত এই দম্পতি। 

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে শহরের পূর্ব খাবাসপুর মহল্লার লঞ্চঘাটে একটি ভাড়া বাড়ি থেকে রাজীব ও স্মৃতির লাশ উদ্ধার করা হয়। স্মৃতির মৃতদেহ ঘরের বিছানায় শায়িত অবস্থায় এবং রাজীবের মৃতদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। 

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) নিহত স্মৃতি বণিকের ভাই নিলয় বণিক বাদী হয়ে তার বোনকে হত্যার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি দেখানো হয়েছে। ময়না তদন্তের পর নিহতদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। 

সোনালী বণিক স্মৃতি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারী ইউনিয়নের বাটিকামারী উত্তর পাড়া গ্রামের খোকন বণিকের মেয়ে। আর রাজীব বিশ্বাস গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার উজানি ইউনিয়নের খালখোলা গ্রামের বাসিন্দা মৃত নিরাঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। পরিবারের অমতে দুই বছর আগে বিয়ে করে তারা। বছরখানেক আগে শওকত সিকদারের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেন। 

রাজীবের মামা বিকাশ বিশ্বাস জানান, রাজীব ফরিদপুর শহরে টিউশনি করে জীবিকা নির্বাহ করত। তবে সে কলেজে শিক্ষকতা করছে বলে আত্মীয়দের জানায়। আর স্মৃতি ফরিদপুরের সারদা সুন্দরি মহিলা কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। 

কোতোয়ালি থানার ওসি মোর্শেদ আলম বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির সময় দেখা যায় স্মৃতির মাথার পেছনে থেঁতলানো। শক্ত জাতীয় কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিছানাতেও রক্ত মাখা ছিল। 

ওসি বলেন, ওই দুই মৃত্যুর ধরন দেখে ধারণা করা হচ্ছে, রাগারাগির এক পর্যায়ে মাথায় আঘাত করা হয় স্মৃতিকে। ফলে তিনি মারা যান। তারপর রাজীব গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। 

আরও পড়ুন : বগুড়ায় বেইলি ব্রিজ ভেঙে ট্রাক খাদে

এ দিকে, ময়না তদন্তের পর দুটি মৃতদেহ দুই পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। স্মৃতির মৃতদেহ গ্রহণ করেন তার ভাই নিলয় বণিক আর রাজীবের মৃতদেহ গ্রহণ করেন তার মামা বিকাশ বিশ্বাস। 

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড