• সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ক্লাসে ঘুমানো সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৫৬
বিদ্যালয়
ব্যাগ ও মুঠোফোন রেখেই শ্রেণিকক্ষের টেবিলে ঘুমিয়ে পড়েন ওই শিক্ষিকা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ক্লাসে ঘুমানো অবস্থায় ফেসবুকে ছবি ভাইরাল হওয়া ‘ছোট সিঙ্গিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের’ সেই সহকারী শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার সুপারিশ করা হয়েছে।

একই সঙ্গে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে নিজ বিদ্যালয়ের এমন ছবি ফেসবুকে পোস্টের দায়ে প্রধান শিক্ষিকা নাজমা আখতারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে ব্যবস্থা নেওয়ারও সুপারিশ করা হয়েছে।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় দৈনিক অধিকারকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা জাহিদ হাসান।

এর আগে রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দৈনিক অধিকারে ‘ক্লাসেই ঘুমাচ্ছেন শিক্ষিকা, ছবি ভাসছে ফেসবুকে’- এই শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি নজরে আসে কর্তৃপক্ষের।

পরে সোমবার দুপুরে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোফাজ্জল হোসেন মণ্ডল সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা জাহিদ হাসান ও আবু মুসাকে ওই বিদ্যালয়ে ঘটনার তদন্তে পাঠান।

তদন্তের ব্যাপারে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা জাহিদ হাসান দৈনিক অধিকারকে জানান, সহকারী শিক্ষিকা পারভীনের বিষয়ে সংবাদ প্রকাশের পর উল্লিখিত সকল অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামীকাল মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করে তদন্ত প্রতিবেদন বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার অফিসে জমা দেওয়া হবে।

অপরদিকে প্রধান শিক্ষিকা নাজমা আখতারের বিরুদ্ধেও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, নিজ বিদ্যালয়ের এমন ঘটনা কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে ভুল করেছেন ওই শিক্ষিকা।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোফাজ্জল হোসেন মণ্ডল বলেন, ‘দৈনিক অধিকারের সংবাদটি নজরে আসার পর বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। মঙ্গলবার দুজন সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা তদন্ত প্রতিবেদন জমা করলেই বিষয়টিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন : প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে, ২ বছরেই লাশ হলো রাজিব-সোনালী

প্রসঙ্গত, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে চলতি বছর বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চাড়োল ইউনিয়নের ওই বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত মোট ৯৪ জন শিক্ষার্থী ছিল। তবে চলমান শিক্ষকদের এমন দ্বন্দ্বের ফলে ১০ জন শিক্ষার্থীকে অন্যত্র ভর্তি করেছেন অভিভাবকগণ। এছাড়া পাঁচজন শিক্ষকের পদ থাকলেও বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে চারজন শিক্ষক পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড