• বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লক্ষ্মীপুরে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ

  রাকিব হোসেন, লক্ষ্মীপুর

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:০৬
লক্ষ্মীপুর
ইলিশ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

শীত মৌসুমেও লক্ষ্মীপুরে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ। সাধারণত জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাস ইলিশের বিলুপ্ত একটি মৌসুম। অন্য মৌসুম সেপ্টেম্বর-অক্টোবর। তবে দুটি মৌসুম ছাড়াও সারাবছরই কম-বেশি ইলিশ পাওয়া যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লক্ষ্মীপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন দৈনিক অধিকারকে বলেন, চলতি মৌসুমের গত এক মাসে লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় প্রায় ৭শ টন ইলিশ ধরা পড়েছে। এর মধ্যে ডিমওয়ালা ইলিশের সংখ্যাই বেশি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বর্ষা মৌসুমের তুলনায় এই শীতে লক্ষ্মীপুরে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। ইলিশকে কেন্দ্র করে ব্যস্ত সময় পার করছেন জেলে, আড়ৎদার ও খুচরা ব্যবসায়ীরা। সুস্বাদু রূপালি ইলিশ সস্তায় মিলছে, তাই জেলার মাছঘাট ও হাট-বাজারগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় চোখে পড়ার মতো। এখন এক কেজি অথবা এর চেয়ে বেশি ওজনের ইলিশ প্রতি কেজির দাম মাত্র ৬শ থেকে ৭শ টাকা। ছোট ইলিশ ২শ থেকে ২৫০ টাকা পর্যন্ত। তবে খুচরা বাজারে মাছঘাটের তুলনায় কিছুটা দাম বেশি হতে পারে।

সরেজমিনে বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) লক্ষ্মীপুর জেলার বিভিন্ন মাছঘাট, ইলিশের আড়ত ও খুচরা বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়। এখন সকাল-সন্ধ্যা ক্রেতা-বিক্রেতাদের হাকডাকে সরগরম মাছঘাট ও আড়তগুলো। গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন হাট-বাজারে পাওয়া যাচ্ছে রূপালি ইলিশ। মাছঘাটগুলোর মধ্যে সদর উপজেলার মজুচৌধুরীহাট, রায়পুরের হাজিমারা, সাজু মোল্লার ঘাট, আলতাফ মাস্টারের ঘাট ও কমলনগরের মতিরহাটে সবচেয়ে বেশি ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে। 

গত বর্ষা মৌসুমে এত বেশি ইলিশ ধরা পড়েনি, এই শীতে যত বেশি ধরা পড়ছে। যে কারণে আগের তুলনায় ইলিশের দামও অনেক কম বলে জানিয়েছেন স্থানীয় জেলে ও আড়তদাররা। প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ায় স্থানীয় জেলে পরিবারগুলো আনন্দ-উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছে। 

রায়পুর উপজেলার হাজিমারা এলাকার জেলে রাজু মাঝি বলেন, ‘গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জালে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। এখন ইলিশ ধরতে দিন-রাত ব্যস্ত সময় পার করছি। ইলিশের দাম কম হলেও ভালো লাগছে, বেশি ইলিশ পাচ্ছি।’

সদর উপজেলার মজুচৌধুরীহাট এলাকার জেলে আলাউদ্দিন বলেন, ‘এবার ইলিশের আয় দিয়ে দাদনের টাকা পরিশোধ করা যাবে।’

আড়তদার আবুল হোসেন বলেন, ‘গত বর্ষা মৌসুমে কাঙ্ক্ষিত হারে ইলিশ পাওয়া যায়নি। কিন্তু এই শীতে প্রচুর ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে। এগুলো সাইজেও বড়। এটা ব্যতিক্রম ঘটনা। গত এক যুগেও এমন চিত্র তিনি দেখেননি বলে জানিয়েছেন।

এ দিকে মেঘনায় ধরা পড়া ইলিশ রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় রপ্তানি হচ্ছে বলে জানা গেছে। জেলার বিভিন্ন মাছঘাটে প্রতিদিন শত শত মণ ইলিশ আমদানি-রপ্তানি হচ্ছে। এখান থেকে পাইকাররা কম দামে ইলিশ কিনে খুচরা বাজারগুলোতে বিক্রি করেন। 

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন আরও বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইলিশের প্রজনন নিরাপদ করতে নির্দিষ্ট সময়ে নদীতে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞাসহ নানামুখী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে জাটকা ও মা ইলিশ রক্ষা পায়। এর ফলে বিলুপ্ত মৌসুমেও প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। আগামী নিষেধাজ্ঞার সময় পর্যন্ত এভাবেই ইলিশ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ডিমওয়ালা ইলিশ ধরা পড়ছে, এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন : লক্ষ্মীপুরে আ. লীগ নেতা হত্যা মামলায় ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

লক্ষ্মীপুর জেলায় প্রায় ৬০ হাজার জেলে রয়েছে। যারা মেঘনা নদীতে ইলিশসহ অন্যান্য মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন। এর মধ্যে নিবন্ধিত ৩৭ হাজার ৩২৬ জন জেলে সরকারি সুযোগ সুবিধা পায়। জেলায় জেলে পরিবারের মোট সদস্য সংখ্যা ২ লাখের বেশি। প্রতি বছর লক্ষ্মীপুরে ইলিশের গড় উৎপাদন ৩৫ হাজার মেট্রিক টন।

ওডি/জেএস

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড