• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা, ফেসবুকের পোস্ট নিয়ে গুঞ্জন

  ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

২০ জানুয়ারি ২০২০, ২২:৩০
স্কুলছাত্র
আত্মহত্যার পূর্বে স্কুলছাত্র রাফাত ফেসবুকে নানা হতাশাজনক পোস্ট দেয় (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় রাফাতুল আলম রাফাত (১৬) নামে এক স্কুলছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় এলাকাজুড়ে নতুন গুঞ্জন শুরু হয়েছে।

গত ১৮ জানুয়ারি ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করলেও সোমবার (২০ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার আত্মহত্যার পূর্বের কিছু পোস্ট নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। এসব পোস্টে নিহত রাফাতুল আলম রাফাত নিজের হতাশা ব্যক্ত করাসহ মৃত্যুকে বরণ করার কথা উল্লেখ করেছিল।

ফলে এ নিয়ে গত দুই দিন ধরে স্থানীয়রা নানা কথা বলছেন। তবে প্রাথমিকভাবে সকলের ধারণা ছিল- টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়াতেই রাফাত আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

নিহত রাফাত ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ফুলপুর পৌরসভার আমুয়াকান্দা বাজারের রফিকুল ইসলামের ছেলে রাফাতুল আলম রাফাত নিজ বসতঘরে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করলে রবিবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আত্মহত্যার খবরে এলাকার লোকজনসহ ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহপাঠী ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা স্কুল বন্ধ করে রাফাতের লাশ দেখতে তার বাড়িতে যায়।

সে সময় রাফাতের পরিবারের সদস্যরা জানায়, ‘রাফাত মেধাবী ছাত্র। টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ার পর থেকেই সে হতাশায় ভুগছিল।’

এ দিকে, নিহত রাফাত তার ফেসবুক প্রোফাইলে গত ১৭ জানুয়ারি মাস্ক দিয়ে মুখ ঢেকে একটি ছবি পোস্ট করেছিল। যার ক্যাপশনে লেখা ছিল- ‘কেউ একজন নাকি আমাকে দেখে ঘৃণা করে তাই আমার মুখ দেখানো নিষেধ’।

শুধু তাই নয়, এর আগে গত ১১ জানুয়ারি রাতে ফাঁসিতে ঝুলন্ত যুবকের প্রতীকী ছবি নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে পোস্ট করে রাফাত। তারও আগে গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর ফাঁসির রশির ছবি দিয়ে নিজের ছবি ঢেকে দেয় সে।

এছাড়াও রাফাতের ফেসবুক প্রোফাইলে প্রেম-বিরহ, পড়ালেখায় দুর্বলতা ও মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার নাটকীয় সংলাপসহ নানা ধরনের হতাশাজনক পোস্ট পাওয়া গেছে।

আর এতেই স্থানীয়দের মধ্যে নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়েছে।

আরও পড়ুন : বিয়ের দাবিতে কলেজছাত্রীর সংবাদ সম্মেলন

এ ব্যাপারে সোমবার ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ইমারত হোসেন গাজী দৈনিক অধিকারকে বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে পরীক্ষায় ফেল করায় ওই যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে অন্যান্য বিষয় নিয়েও পুলিশি তদন্ত চলছে।’

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড