• বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

খেজুর রস চুরি করে খাওয়ায় কৃষককে পিটিয়ে হত্যা 

  যশোর প্রতিনিধি

১৬ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৪৭
মরদেহ
নিহত হাসেম আলীর মরদেহ ( ছবি : দৈনিক অধিকার )

চুরি করে খেজুরের রস খাওয়ায় এক কৃষককে পিটিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। কৃষকের নাম হাসেম আলী (৪০)। তিনি যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নের ভাতুড়িয়া গ্রামের রহিম উদ্দীনের ছেলে।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের ছেলে আছর আলী জানান, বাবা হাসেম আলীসহ তার তিন বন্ধু প্রতিবেশী আকবর আলীর খেঁজুর বাগানে চুরি করে রস খেতে যান। এ সময় সন্ত্রাসী মিন্টু, মান্নান ও ইমরানসহ ৭-৮ জন তাকে মারধর করেন। পরে রাত ৮টার দিকে সন্ত্রাসীরা আবারও হাসেম আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় বাবা বাধা দিতে গেলে হামলাকারীরা তাকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে হাসেম আলী চিকিৎসার জন্যে ভ্যানে করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে যাচ্ছিলেন। পথে ভাতুড়িয়া বাজারের কাছে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা তার ভ্যান গতিরোধ করে আবারও মারধর করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা হুমকি দিয়ে বলে, হাসপাতালে গেলে তাকে হত্যা করা হবে। পরে পরিবারের লোকজন হাসেম আলীকে হাসপাতালে না নিয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বিনা চিকিৎসায় বৃহস্পতিবার বিকালে তার মৃত্যু হয়।

পরে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পুলিশ হাসেম আলীর মরদেহ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার কমপক্ষে ৪-৫ ঘণ্টা আগেই হাসেম আলী মারা যায়।

আরও পড়ুন: সিঁধ কেটে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

যশোর কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, হাসেম আলীর লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

ওডি/এসএএফ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801721978664

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড