• শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘ওয়ান টুতে খালাস, কোর্টে উঠবেন আর নামবেন’

  শরীয়তপুর প্রতিনিধি

১৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:২৬
অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান
অভিযুক্ত অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান ( ছবি : দৈনিক অধিকার )

‘ওয়ান টুতে খালাস, কোর্টে উঠবেন আর নামবেন’। এমনি কথা বলে হত্যা মামলার আসামির জামিন করিয়ে দেওয়ার কথা বলে দেড় লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমানের বিরুদ্ধে। তিনি শরীয়তপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য।

চলতি মাসের ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিষদের সভায় অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন গোসাইরহাট উপজেলার মোকলেছ দফাদার নামে এক ব্যক্তি। 

আইনজীবী সমিতি সূত্রে জানা যায়, গোসাইরহাট উপজেলার মোকলেছ দফাদার একটি হত্যা মামলা নিয়ে অ্যাড. মৃধা নজরুল ইসলামের কাছে যান। এ সময় মৃধা নজরুল ইসলাম আসামিকে বলেন, এই মামলায় জামিন করাতে সময় লাগবে। এরপর মামলার আসামি মোকলেছ দফাদার অ্যাড. মাসুদুর রহমানের কাছে যান। এ সময় অ্যাড. মাসুদুর রহমান মামলার আসামিকে বলেন, ‘এটা ওয়ানটুর ব্যাপার, আপনি শুধু কোর্টে উঠবেন, আর নামবেন। জামিন হয়ে যাবে। বিনিময়ে আপনাকে ২ লাখ টাকা দিতে হবে।’ পরবর্তীতে দেড় লাখ টাকায় রাজি হয় মাসুদুর রহমান। এরপর আসামিকে নিয়ে আদালতে হাজির হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। 

এরপর আসামি মোকলেছ দফাদার দীর্ঘ ৮ মাস কারাভোগ করেন। পরে হাইকোর্ট থেকে জামিনে বের হয়ে অ্যাড. মাসুদুর রহমানের বিরুদ্ধে জেলা আইনজীবী সমিতিতে অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগপত্র (ছবি : দৈনিক অধিকার)

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু সাঈদ ৭ জানুয়ারি নির্বাহী পরিষদের সভায় অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমানের সদস্য পদ ১২ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নব্বই (৯০) কার্যদিবস পর্যন্ত সাময়িকভাবে স্থগিত করেন।

জেলা বার সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান ১৪ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নব্বই (৯০) কার্যদিবস পর্যন্ত জেলার কোনো আদালতের কোনো কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। একই সঙ্গে অভিযোগকারী মোকলেছ দফাদারকে ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ৯০ দিনের মধ্যে ফেরত দিতে হবে।

এ ব্যাপারে অ্যাড. মাসুদুর রহমান দৈনিক অধিকারকে বলেন, আমি তিন দিন ধরে অসুস্থ। এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না। 

আরও পড়ুন: বাড়িভাড়া দিতে না পারায় ভাড়াটিয়াকে গণধর্ষণ

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) এ বিষয়ে জেলা বার সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলাম দৈনিক অধিকারকে বলেন, এক পক্ষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে কাজ না করাতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, যার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে তাকে টাকা ফেরত না দিলে নিয়ম অনুযায়ী ৩ মাস পরে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করব। 

ওডি/এসএএফ 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড