• সোমবার, ২০ জানুয়ারি ২০২০, ৭ মাঘ ১৪২৭  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাদার নদী থেকে নৌচালকের মরদেহ উদ্ধার

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

১৪ জানুয়ারি ২০২০, ১২:৩৫
সাতক্ষীরা
ছবি : প্রতীকী

সুন্দরবন-সাতক্ষীরা রেঞ্জের মাদার নদী থেকে নবাব আলী গাজী (৬৫) নামের এক নৌযান চালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) গভীর রাতে স্থানীয়দের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের ভেটখালী এলাকার কোস্টগার্ড অফিসের সম্মুখস্থ নৌপল্টুনে বাঁধা অবস্থায় বনরক্ষীর পোশাক পরিধেয় ওই মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত নবাব আলী গাজী শ্যামনগর উপজেলার পূর্ব কৈখালী গ্রামের প্রয়াত আবদুল মজিদের ছেলে। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে পশ্চিম বন বিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের কৈখালী স্টেশনে চুক্তিভিত্তিতে (অন পেমেন্ট) নৌযান চালকের কাজ করছিলেন।

নিহতের ছেলে কাছিকাটা টহল ফাঁড়ির নৌযান চালক রফিকুল ইসলাম জানান, রবিবার রাত নয়টার দিকে স্টেশন অফিস থেকে তার বাবা বাড়ি ফেরেন। এর পর রাত দশটার দিকে তার বাবাকে মুঠোফোনে কল দিয়ে কে বা কারা বাড়ির পাশের স্টেশন অফিসে যাওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে যায়।

রফিকুল ইসলাম আরও জানান, ওই রাতে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর দুপুর পর্যন্ত তারা বাবার খোঁজ-খবর নেননি। বেলা দুইটার দিকে কৈখালী স্টেশন থেকে তার বাবাকে ডাকতে আসার পর তারা তাকে খুঁজতে থাকেন। অনেক খোঁজাখুঁজির একদিন পর সোমবার গভীর তার বাবার মরদেহটি উদ্ধার হয়।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত নবাব আলীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

কৈখালী বন স্টেশন কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, নবাব আলী চুক্তিভিত্তিতে (অন পেমেন্ট) অফিসে নৌচালক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে কৈখালী বন অফিসে নৌচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ওডি/এমবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড