• সোমবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৩ মাঘ ১৪২৬  |   ১৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঝালকাঠিতে সাবেক বিজিবি সদস্য হত্যার ঘটনায় মামলা

  ঝালকাঠি প্রতিনিধি

১৩ জানুয়ারি ২০২০, ০০:৫৪
নিহত বিজিবি সদস্য নুরুল ইসলাম মল্লিক
নিহত বিজিবি সদস্য নুরুল ইসলাম মল্লিক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঝালকাঠিতে প্রতিপক্ষের হামলায় অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি সদস্য নুরুল ইসলাম মল্লিক (৫৫) হত্যার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। রবিবার (১২ জানুয়ারি) রাতে নিহতের ছোট ভাই মো. সামছুল হক মল্লিক বাদী হয়ে আট জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘর উত্তোলনকে কেন্দ্র করে দেওয়ানী মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ঘর উত্তোলনে নিষেধাজ্ঞা থাকায় দুই পক্ষের আইনজীবীদের নিয়ে সালিশে মীমাংসার নির্দেশ দেন আদালতের বিচারক। 

এর প্রেক্ষাপটে শনিবার বিকাল ৩টার দিকে নুরুল ইসলামের বাড়িতে অ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম কবীর, অ্যাডভোকেট খান হাফিজুর রহমান বাবু, অ্যাডভোকেট চুন্নু মিয়া উভয় পক্ষকে নিয়ে মীমাংসার জন্য বৈঠকে বসে। সালিশের মধ্যেই সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায় প্রতিপক্ষ খালেক হাওলাদারের নেতৃত্বে ৮/১০ জন মিলে অবসার প্রাপ্ত বিজিবি সদস্য নুরুল ইসলামের ওপর হামলা চালায়। 

এ হামলায় তিনি গুরুতর জখম হন। রাত ৮টার দিকে নুরুল ইসলামকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর পক্ষের রিপন (২৪) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসলে পুলিশ তাকে আটক করে। 

নিহতের ছেলে সেনা সদস্য গোলাম রাব্বি জানান, বাবার হত্যার সংবাদ শুনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রবিবার সকালে বাড়িতে এসেছি। আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে মাগরিবের নামাজের পরে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। আমি আমার পিতার হত্যার বিচার চাই। 

বাসন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান মোবারেক হোসেন মল্লিক জানান, নুরুল ইসলাম ও আব্দুল খালেকের মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘ দিনের। এনিয়ে একাধিকবার সালিশ বসলেও কোনো সমাধান করতে পারিনি। শনিবার সন্ধ্যায় প্রতিপক্ষরা হামলা চালিয়ে নুরুল ইসলামকে হত্যা করেছে। এর একটা সঠিক ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন। 

আরও পড়ুন: ঝালকাঠিতে জমি নিয়ে বিরোধে অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি সদস্যকে হত্যা

ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. খলিলুর রহমান জানান, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট ফোর্স নিয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ররিবার রাতে নিহতের ছোট ভাই সামছুল হক মল্লিক বাদী হয়ে আটক রিপনসহ আটজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনা তদন্ত করে পরবর্তি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। 

ওডি/ এফইউ
     

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড