• বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

গৃহবধূকে হত্যা, পুলিশ আসার আগেই শ্বশুর বাড়ির সবাই পলাতক

  পটিয়া প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম

০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৬
চট্টগ্রাম
নিহত গৃহবধূ খায়রুন্নেছা কুসুম

চট্টগ্রামের পটিয়ায় এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) রাতে পটিয়া থানা পুলিশ খায়রুন্নেছা কুসুম (২৫) নামের এ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

উপজেলায় জিরি ইউনিয়নের শশুর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটার পর থেকে শ্বশুর শাশুড়ি, স্বামী ননদসহ পরিবারের সবাই পলাতক রয়েছে বলে স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

পটিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বোরহান উদ্দিন মজুমদার জানান, খায়রুন্নেছার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে সন্ধ্যায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে সেসময় পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি।

নিহত খায়রুন্নেছার ভাই কায়সার বলেন, শনিবার বিকালে শ্বশুড় বাড়ির লোকজন আমার বোন অসুস্থ বলে খবর দেয়। আমরা শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে আমার বোনকে দেখতে চাইলে তারা প্রথমে বোন কোথায় আছে দেখাতে চায়নি। পরে পীড়াপীড়িতে দেখা যায় একটা অন্ধকার রুমে বোনকে ফেলে রেখেছে। তারা প্রথমে বলেছে হার্ট হ্যার্টাক করে বোন মারা গেছে। আমাদের সন্দেহ হলে জোর করে মহিলারা শরীর তল্লাশি করে দেখতে পায় গলার নীচে কালো দাগ। এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে তারা বলে ফাঁস খেয়ে আত্মহত্যা করেছে। আমরা এ নিয়ে থানায় খবর দেওয়ার পর পুলিশ আসার আগেই শ্বশুর বাড়ির সবাই পালিয়ে যায়।

নিহত খায়রুন্নেছা একই উপজেলার বড়লিয়া ইউনিয়নের পেরোলা গ্রামের আবুল কাসেমের মেয়ে। প্রায় ৫ বছর আগে জিরি ইউনিয়নের দক্ষিণ জিরি গ্রামের মো. ইব্রাহিমের সাথে তার বিয়ে হয়েছিল। তাদের সংসারে ৪ বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে। স্বামী ইব্রাহিম নগরীর পাঁচলাইশস্থ সার্জিস্কোপ-১ ও ২ এ ল্যাবে কাজ করে।

ওডি/আরবি

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড