• সোমবার, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রিনা হত্যার রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার ২

  ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:৪০
ত্রিশাল
ত্রিশাল থানার গেট (ছবি : সংগৃহীত)

অজ্ঞাত নারী হত্যার রহস্য উদঘাটন করল ময়মনসিংহ পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। ময়মনসিংহের ত্রিশালের চেলেরঘাট এলাকার খিরু নদীর ব্রিজের পাশে অজ্ঞাত যুবতীকে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়। এ ঘটনার পর মরদেহের ফিঙ্গার প্রিন্ট প্রযুক্তির মাধ্যমে অজ্ঞাত নারীর লাশের পরিচয় মেলে পিবিআইয়ের কাছে। ব্রিজের নীচে ফেলে রাখা নিহত যুবতী মাগুরা জেলার সদর উপজেলার খানপুর গ্রামের মুরাদ মোল্লার মেয়ে রিনা খাতুন। তিনি ঢাকার একটি গার্মেন্টসে শ্রমিকের কাজ করতেন।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) ময়মনসিংহ আদালতে দেওয়া আসামিদের জবানবন্দিতে বেড়িয়ে আসে হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য। তার আগে এ ঘটনায় বুধবার (৪ ডিসেম্বর) রাতভর অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মিরপুরের পাইকপাড়া এলাকা থেকে হত্যাকাণ্ডে জড়িত রুবেল (৩১) ও তার সহযোগী প্রাইভেটকার চালক ইমারত (৩৬) কে গ্রেফতার করে পিবিআই। জব্দ করা হয় তাদের ব্যবহৃত প্রাইভেটকারও। এর আগে গত ২৩ অক্টোবর ময়মনসিংহের ত্রিশালের চেলেরঘাট খিরু নদীর ব্রিজের নিচ থেকে অজ্ঞাত এক নারীর লাশ উদ্ধার করে ত্রিশাল থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয় ত্রিশাল থানায়। পরে ২৫ নভেম্বর মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পিবিআইয়ের হাতে পড়লে ফিঙ্গার প্রিন্ট প্রযুক্তির মাধ্যমে অজ্ঞাত নারীর লাশের পরিচয় পায় পিবিআই। পিবিআই জানতে পারেন মাগুরা জেলার সদর উপজেলার খানপুর গ্রামের মুরাদ মোল্লার মেয়ে রিনা খাতুন ঢাকার একটি গার্মেন্টসে শ্রমিকের কাজ করতেন।

পরে পিবিআই ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুবকর ছিদ্দিকের নেতৃত্বে বুধবার রাতভর অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ঢাকা মিরপুর পাইকপাড়া এলাকা হতে রিনা হত্যার মূল আসামি রুবেল ও তার সহযোগী ইমারতকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রুবেল কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার শিকান্দরনগর গ্রামের মৃত সবুজ হাওলাদারের ছেলে এবং ইমারত মোল্লা ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারি উপজেলার দীতপুর গ্রামের মৃত মানিক মোল্লার ছেলে। পরে বৃহস্পতিবার আদালতে তাদের দেওয়া জবানবন্দিতে বেড়িয়ে আসে হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য।

এএসপি আবু বকর সিদ্দিক আরও জানান, জবানবন্দিতে আসামিরা আদালতে বলেছে, পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কের সূত্রে রিনাকে তার প্রেমিক রুবেল তার গ্রামেরবাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার শিকান্দরনগর নিয়ে যাওয়ার কথা বলে (ঢাকা মেট্রো-চ-২৫-৫৫২৮ নম্বরের) একটি প্রাইভেটকার যোগে ঢাকা থেকে নিয়ে আসে। প্রথমে রিনাকে ত্রিশালের বালিপাড়া ব্রিজের মোড়ে নিয়ে যায়। পরে আবার গাড়ি নিয়ে চলে আসে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেলেরঘাট এলাকায় খিরু নদীর ব্রিজের পাশে। সেখানেই শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশটি ব্রিজের নিচে ফেলে রেখে তারা আবার ঢাকা চলে যায়।

ওডি/টিএএফ

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড