• সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নোয়াখালীতে সংখ্যালঘু পরিবারে হামলা

  নোয়াখালী প্রতিনিধি

০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:৪২
নোয়াখালী
ভাঙচুরকৃত হিন্দু পরিবারের বসতঘর (ছবি : দৈনিক অধিকার)

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে ইউপি সদস্য ও তার ছেলের বিরুদ্ধে এক হিন্দু পরিবারের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। 

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভুক্তভোগী গৃহবধূ গীতা রানী বাদী হয়ে সোনাইমুড়ী থানায় ইউপি সদস্য ও তার ছেলেসহ মোট ১১ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

এর আগে সোমবার (২ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলার ৯ নম্বর দেওটি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের পাল পাড়া মিস্ত্রি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে সোনাইমুড়ী থানার পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। 

ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য রিপন চন্দ্র সূত্রধর বলেন, কেরাম খেলাকে কেন্দ্র করে ৯ নম্বর দেওটি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. স্বপনের ইন্ধনে তার ছেলে রুমন হোসেন (২০) ও তার সতীর্থরা আমাদের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এ সময় আমার বৃদ্ধ মা গীতা রাণীকে (৫৫) লাঞ্ছিত করা হয়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো. স্বপন দাবি করেন তিনি এবং তার ছেলে এ হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার প্রশ্নই ওঠে না। তবে হিন্দু বাড়িতে হামলা হয়েছে সত্য, তিনি দাবি করেন কে বা কারা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে তিনি তাদের সম্পর্কে অবগত নন। 

হামলা ও ভাঙচুরের সত্যতা নিশ্চিত করে সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আবদুস সামাদ বলেন, গতকাল তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছি। ভুক্তভোগী গৃহবধূ ১১ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। 

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড