• শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

২০ লাখ টাকা জরিমানা গুণল ইটভাটা মালিক, ম্যানেজারের কারাদণ্ড

  ঝালকাঠি প্রতিনিধি

০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:৫৮
কারাদণ্ড
লাইসেন্স ছাড়াই ইটভাটা পরিচালনার দায়ে ম্যানেজারকে কারাদণ্ড দেওয়া হয় (ছবি : প্রতীকী)

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলায় একটি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই অভিযানে ওই ইটভাটার ম্যানেজারকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

রবিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার মগড় ইউনিয়নের সুজাবাদ গ্রামের ওই ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেন বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল হালিম। এ সময় পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক তোতা মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

পরিবেশ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, সুজাবাদ গ্রামের সুগন্ধা নদীর তীরবর্তী এলাকায় অবাধে গড়ে ওঠা ‘মেসার্স ইসলাম ব্রিকস’ নামে ওই ইটভাটাটি পরিচালনা করেন জাকির হোসেন। রবিবার দুপুরে র‍্যাব ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের সহযোগিতায় ওই ইটভাটায় অভিযান চালায় বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তর। পরে ইটভাটার মালিক জাকির হোসেন বৈধ কোনো কাগজপত্র দেখাত না পারায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে দুই বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন। একই সঙ্গে ম্যানেজার আবুল কালামকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পাশাপাশি ধ্বংস করা হয় ৮০ লাখ টাকা মূল্যের কাঁচা ইট।

সবশেষে ইটভাটাটি সিলগালা করে বন্ধ করে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জরিমানা ও কারাদণ্ডের সত্যতা স্বীকার করে বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক আবদুল হালিম দৈনিক অধিকারকে জানান, জেলা প্রশাসনের লাইসেন্স ছাড়াই ওই ইটভাটায় কাঁচা ইট তৈরি করা হয়। পরে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়। পরবর্তীকালে লাইসেন্স ছাড়াই ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপনের দায়ে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ আইনে তাদের কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়।

ওডি/আইএইচএন

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড