• রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মুন্সীগঞ্জে এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত অর্থ আদায়

  রিয়াদ হোসাইন, মুন্সীগঞ্জ

১১ নভেম্বর ২০১৯, ২২:০৪
স্বর্ণগ্রাম আর এন উচ্চ বিদ্যালয়
স্বর্ণগ্রাম আর এন উচ্চ বিদ্যালয় (ছবি : দৈনিক অধিকার)

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার প্রায় সবকটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফরম পূরণের সময় অন্য কোনো ফি আদায় না করার নির্দেশনা থাকলেও তা অমান্য করে বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। 

শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য কেন্দ্র ও ব্যবহারিক ফিসহ মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ১৮৫০ টাকা ও বিজ্ঞান শাখায় ১৯৭০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সরেজমিনে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার দিঘীরপাড় এ সি ইনস্টিটিউশন ৪ হাজার টাকা, স্বর্ণগ্রাম আর এন উচ্চ বিদ্যালয় ৪ হাজার ৩শ টাকা, বেতকা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫ হাজার টাকা, টঙ্গীবাড়ী পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪ হাজার টাকা করে ফরম ফিলাপ বাবদ আদায় করছে। এ ক্ষেত্রে ফরম পূরণের নামে অতিরিক্ত আদায়কৃত অর্থের কোনো রশিদ দিচ্ছে না বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

দিঘীরপাড় এ সি ইনস্টিটিউশনের এক শিক্ষার্থী বলেন, ৪ হাজার টাকা দিয়ে ফরম পূরণ করেছি। স্কুলের নির্ধারিত টাকা থেকে কম দিলে ফরম পূরণ করা যাচ্ছে না।

স্বর্ণগ্রাম আর এন উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বলেন, আমি ৪ হাজার ৩১৫ টাকা দিয়ে ফরম ফিলাপ করেছি। আমার এক বন্ধু দরিদ্র হওয়ায় সে কিছু টাকা কম দিতে চেয়েছে কিন্তু প্রধান শিক্ষক অনুমতি দেয়নি। 

বেতকা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দৈনিক অধিকারকে বলেন, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী কতটাকা আমাদের জানা নেই। তাই স্যারেরা যা বলেন তা দিয়ে আমরা ফরম ফিলাপ করেছি। এর চেয়ে কম টাকা দিলে ফরম ফিলাপের অনুমতি মিলছে না।

অভিভাবকরা জানান, আমরা সন্তান নিয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে সব সময় জিম্মি থাকি। সরকারি কোনো প্রকার নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে যখন তখন আমাদের ওপর বিভিন্ন ফি চাপিয়ে দেয়। সন্তানের ক্ষতির আশঙ্কায় এসব বিষয় নিয়ে কখনো মুখ খুলতে পারি না।

স্বর্ণগ্রাম আর এন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল বাসেদ বলেন, স্কুল পরিচালনা কমিটির মতামত নিয়ে ফরম ফিলাপের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছে ৪ হাজার ৩১৫ টাকা নেওয়া হচ্ছে । এর মধ্যে অতিরিক্ত ক্লাস , মিলাত ও স্কুলের দপ্তরিদের বকশিস রয়েছে।

বেতকা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মহিউদ্দিন আহমেদ অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সরকারি বিধি অনুযায়ী ফরম ফিলাপের টাকা আদায় করছি। সেই সঙ্গে কোচিং বাবদ প্রতি বিষয়ে ১৫০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে।

ফরম ফিলাপে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের কথা অস্বীকার করে দিঘীরপাড় এ সি ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক কে এম মোশারফ হোসেন জানান, আমরা সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ফরম ফিলাপের টাকা আদায় করেছি। অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হচ্ছে না।

এ বিষয়ে টঙ্গীবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তার জানান, গত মিটিংয়ে শিক্ষকদের বলা হয়েছিল, এসএসসি পরিক্ষার ফরম ফিলাপে শিক্ষর্থীদের থেকে যেন অতিরিক্ত অর্থ আদায় না করা হয়। যদি কোনো বিদ্যালয় নির্দেশনা অমান্য করে ফরম ফিলাপে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করে তাহলে খোঁজ-খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ওডি/ এফইউ
 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড