• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বুলবুল তাণ্ডবে যশোরে ক্ষতিগ্রস্ত ১২৮৫ হেক্টর জমির ফসল

  যশোর প্রতিনিধি

১০ নভেম্বর ২০১৯, ২০:০১
বুলবুল
বুলবুলের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ধান ক্ষেত (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে যশোর জেলার প্রায় ১ হাজার ২৮৫ হেক্টর জমির বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। 

রবিবার (১০ নভেম্বর) যশোরের বিভিন্ন উপজেলায় সরেজমিন পরিদর্শন করেছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা। তারা এসব ক্ষতির তালিকা করে মন্ত্রণালয়ে পাঠাবে বলে জানা গেছে। 

আর কয়েকদিন পর আমন ধান কাটা হবে। এ সময় বুলবুলের প্রভাবে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে মাটির সঙ্গে ধান শুয়ে পড়েছে।  

যশোর শার্শা উপজেলা পাঁচ ভূলাট গ্রামের আব্দুস সাত্তার জানান, আমি ১০ বিঘা জমিতে আমন ধানের চাষ করেছি। আমন ধান আর কয়েকদিন পর বাড়ি আসার কথা কিন্তু বুলবুলের আঘাতে প্রায় ৭ বিঘা জমির ধান মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। বুলবুল আঘাত না হানলে আমরা প্রতি বিঘা থেকে প্রায় ২০ মণ ধান উৎপাদন হতো। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে প্রতি বিঘা থেকে ৮ থেকে ১০ মণ ধান পাওয়া যাবে। 

তিনি আরও জানান, গত বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) এক বিঘা জমিতে পটলের লতি (চারা) রোপণ করেছি। কিন্তু গত তিন দিন বুলবুলের প্রভাবে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির কারণে সব লতি নষ্ট হয়ে গেছে। এ অবস্থায় সরকার যদি সহজ শর্তে ঋণের ব্যবস্থা করে তাহলে আগামীতে চাষ করতে আরও সহজ হবে। 

মণিরামপুর উপজেলার মাসুম জানান, আমি নিজের ও অন্যের কাছ থেকে কিছু জমি বর্গা নিয়ে প্রায় ৪ একর জমিতে আমন ধান চাষ করেছি। হঠাৎ বুলবুলের কারণে আমার ক্ষেতের ধান প্রায় সব নষ্ট হয়ে গেছে। তিনি আরও জানান, এখন ধানে চাল গাঁথা ও পুষ্টি হওয়ার সময়। ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে ধান গাছ সব মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। এবার যে পরিমাণ ধান উৎপাদন আশা করেছিলাম তার অর্ধেকও উৎপাদন হবে না। এরপরও যদি সরকার ধানের দাম বৃদ্ধি করে তাহলে আমাদের ক্ষতিটা কিছুটা পুষিয়ে উঠবে।

যশোর চৌগাছা রামকৃষ্ণপুর গ্রামের ছকিনা বেগম বলেন, আমি এক বিঘা জমিতে মসুরি ও ১০ কাটা জমিতে মুগডাল চাষ করেছিলাম কিন্তু হঠাৎ বৃষ্টির কারণে সব নষ্ট হয়ে গেছে। যার বাজার মূল্য প্রায় ৩৫ হাজার টাকা।  

যশোর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সুশান্ত কুমার তরফদার বলেন, আমরা সকাল থেকে যশোর জেলার মণিরামপুর, কেশবপুর, ঝিকরগাছা ও সদরের বিভিন্ন অঞ্চলের মাঠ পরিদর্শন করেছি। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে প্রায় ৬৭৫ হেক্টর জমির ধান, ৫ হেক্টর জমিতে কলা, ৬০০ হেক্টর জমির মসুরি ৫ হেক্টর জমির পেঁপে গাছের ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কৃষকদের ক্ষতির পরিমাণ তালিকা তৈরি করে কৃষি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি। 

ওডি/এএসএল

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড