• বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বেড়িবাঁধ ভাঙনের আতঙ্কে সাতক্ষীরার লক্ষাধিক মানুষ

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

০৮ নভেম্বর ২০১৯, ২২:১৩
ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ
ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ (ছবি : দৈনিক অধিকার)

ক্রমেই উপকূলের দিকে ধেয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের’ প্রভাবে ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধে ভাঙনের আশঙ্কায় চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকার লক্ষাধিক মানুষ। উপকূলের প্রায় ২৫০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ থাকায় তাদের মধ্যে এ আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সিডর ও আইলায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধে ব্যাপক ভাঙন ও ফাঁটল থাকার পরও গত কয়েক বছরে তা সংস্কার হয়নি। এছাড়া নদী ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করায় সিডর ও আইলা বিধ্বস্ত সাতক্ষীরার শ্যামনগর, আশাশুনি, কালিগঞ্জ ও দেবহাটা উপজেলার ভাঙন কবলিত এলাকার লক্ষাধিক মানুষ চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন।  ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে যেকোনো সময় আশাশুনি, শ্যামনগর, কালিগঞ্জ ও দেবহাটা উপজেলার কপোতাক্ষ নদ, খোলপেটুয়া, ইছামতি ও বেতনা নদীর বেড়ি বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, সাতক্ষীরা পাউবো বিভাগ-১ ও ২ এর অধীনে ১১টি পোল্ডারে ৮শ কিলোমিটার বেড়িবাঁধের মধ্যে প্রায় ৭০টি পয়েন্টে ২৫০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে ২০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ।

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড বিভাগ- ১ ও ২ এর আওতাধীন আশাশুনি উপজেলার জেলেখালী, দয়ারঘাট, কেয়ারগাতি, চাকলা, বিছট, কাকবসিয়া, কোলা, হাজারাখালী, ঘোলা ত্রিমোহনী, হিজলিয়া, চন্ডিতলা ও বুধহাটার তেতুলতলা, দেবহাটা উপজেলার সুশীলগাতী, চরকোমরপুর, খারাট, টাউনশ্রীপুর ও ভাতশালা এবং শ্যামনগর উপজেলার পদ্মপুকুর, গাবুরা, কাশিমাড়ি, বুড়িগোয়ালিনী, মুন্সিগঞ্জ ও রমজাননগর ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি পয়েন্টে পাউবোর বেড়িবাঁধে মারাত্মক ভাঙন ধরেছে।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আঘাত হানলে যে কোনো মুহূর্তে বেড়িবাঁধ ভেঙে গিয়ে এই তিন উপজেলার বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে লক্ষাধিক লোক পানিবন্দ্বি হয়ে পড়বে। সেই সঙ্গে পানিতে তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে হাজার হাজার বিঘা চিংড়ি ও কাকঁড়া ঘের এবং ফসলের ক্ষেত।

একইভাবে আতঙ্কে রয়েছে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার সীমান্ত নদী ইছামতি। সম্প্রতি উপজেলার সুশীলগাতী, চরকোমরপুর, টাউনশ্রীপুর ও ভাতশালা এলাকায় ইছামতি নদীর বেড়িবাঁধে ভয়াবহ ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফলে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ ক্রমেই উপকূলের দিকে এগিয়ে আসায় ওই এলাকায় বসবাসরত মানুষজনের মধ্যে আতঙ্ক বাড়ছে।

সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবুল খায়ের জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ নিয়ে মানুষ বেশ আতঙ্কিত। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা জন্য তারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এ বিভাগের অধিনে ৩৮০ কিলোমিটর বেড়িবাঁধ রয়েছে। এর মধ্যে কমপক্ষে ১০টি পয়েন্টে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধের পরিমাণ প্রায় ৮ কিলোমিটার এবং ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ ৩০ কিলোটারের মতো।

সাতক্ষীরা পাউবো বিভাগ-২ এর নির্বাহী  প্রকৌশলী আরিফ উজ্জামান খান জানান ঘূর্ণিঝড় , ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় তার বিভাগে সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ বিভাগের আওতাধীন ৪২০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ রয়েছে। এর মধ্যে ৬০টি পয়েন্টে ১২কিলোমিটার বাঁধ অধিক ঝুঁকিপূর্ণ এবং প্রায় ২শ কিলোমিটার বাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে।

ওডি/ এফইউ
 

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড