• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিসিএস লিখিত প্রস্তুতি (পর্ব- ০৪)

  ক্যারিয়ার ডেস্ক

২৯ আগস্ট ২০১৯, ১২:৪২
সাইফুল হুদা নাজাত

প্রিলি-রিটেনের রেজাল্টের পর বারবার পিডিএফ ওপেন করে নিজের রোলটা চেক করতাম। আর ৩৭তম চূড়ান্ত ফলের পর তো পরমানন্দে চোখ হতে ঘুমই চলে গিয়েছিল কিছু দিনের জন্যে। সে কী এক অসামান্য আনন্দ তার কিছুটা আজ হয়তো কেউ কেউ টের পাচ্ছেন যারা প্রথমবারের মতো প্রিলি পাস করলেন। তাদের জন্যই আমার এ লেখা। 

যারা প্রথমবার রিটেন দিচ্ছেন বা প্রিলি পাস করবেন কিনা নিশ্চিত ছিলেন না, তাদের সম্ভবত তেমন কিছুই পড়াশোনা করা হয়নি। ধরে নিই, কিছুই পড়াশোনা হয়নি। তাহলে সহজে পরামর্শ দেওয়া ও নেওয়া যাবে।

ধরুন, আপনি সর্বোচ্চ চার মাস সময় পাবেন রিটেন প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য। এর বেশি সময় পেলে সেটা হবে বোনাস। যেখানে স্ট্র্যাটেজিক মেথডে না এগুলে এই বিশাল সিলেবাসের সমুদ্রে ডুবে যাওয়ার রয়েছে সমূহ সম্ভাবনা।

সে কারণেই আপনার প্রিপারেশন নেওয়ার ধরন হতে হবে qualitive, not quantative. বেশি পড়বেন ঠিক আছে তবে বুঝে-শুনে। সবসময় যা পড়বেন, তা খাতায় কিভাবে প্রেজেন্ট করবেন সেটা ভেবে পড়া উচিত। 

এখানে আমি বিষয়ভিত্তিক কিছু বইয়ের সাজেশন্স দিব। পাশাপাশি আমার অভিজ্ঞতার আলোকে গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করব।

★ বাংলাদেশ বিষয়াবলী ★

এতো বিশাল সিলেবাস দেখে 'অথৈ সাগরে পড়ে গেছি' ছাড়া ভিন্ন কোন ভাবনা মাথায় আসার কথা নয়। এটা খুব সহজেই অনুমেয়। বিশেষ করে বিজ্ঞান বিভাগের অধিকাংশ ছাত্রদের এ বিষয়ে বাজে পরীক্ষা দেওয়ার তিক্ত অনুভূতি রয়েছে। তবে সিলেবাস বুঝে পড়লে এবং প্রিলির অর্জিত জ্ঞান কাজে লাগাতে পারলে ভালো ফল আসবে আশা করি।

বই / গাইড :

(১) অ্যাসিউরেন্স / প্রফেসর'স

(২) মাসিক ওরাকল জ্ঞানপত্র

(৩) বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা

২০০ মার্কসের এই পরীক্ষায় ২০ নম্বরের ১০ টি প্রশ্ন উত্তর করতে হয়। প্রতি প্রশ্নের ভেতর আবার ২/৩ টি সাব-কোয়েশ্চেনস থাকে।

টার্গেট মার্কস :

১০ x ১২/১৪ = ১২০/১৪০

এক্ষেত্রে আপনাকে কিছু টপিক বা চ্যাপ্টার সিলেক্ট করতে হবে যেখান হতে ১২০-১৪০ মার্কসের প্রশ্ন আসতে দেখা যায়। আমার মতে ফোকাস দেওয়ার মতো কিছু চ্যাপ্টার নম্বরগুলো হলোঃ 1, 4, 7, 8, 9, 11, 12, 16 (চ্যাপ্টার নম্বরগুলো সিলেবাস অনুযায়ী)। এই চ্যাপ্টারগুলোর প্রশ্নও হয় টু-দি-পয়েন্টে উত্তর করার মতো। তাই ভালো করলে ৭৫-৮০% নম্বর পর্যন্ত পাওয়া সম্ভব হবে।

করণীয় :

(১) বিগত বছরগুলোতে একাধিকবার আসা প্রশ্নগুলো স্টাডি করলে ১০০-১৫০ নম্বর পর্যন্ত কমন পড়তে পারে। I repeat একাধিকবার আসা প্রশ্নগুলো! ৩৫ তম বিসিএস থেকে ৩৮ তম বিসিএস পর্যন্ত আসা প্রশ্ন স্টাডি করে ইম্পর্টেন্ট টপিকগুলো বোঝবার চেষ্টা করবেন। আর সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় থেকে একটি প্রশ্ন তো থাকতেই পারে। যেমনঃ ডেঙ্গু সমস্যা, রোহিঙ্গা ইস্যু, উন্নয়ন মেলা, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ইত্যাদি।

(২) টু-দি-পয়েন্ট উত্তর দিবেন। অল্প কথায় সঠিক উত্তর লিখুন। কমন না পড়লেও বানিয়ে ক্রিয়েটিভ উত্তর লিখার চর্চা করুন। এক্ষেত্রে প্রেজেন্টেশনের উপর ফোকাস দিন। যেন ভুল উত্তর হলেও আপনার ক্রিয়েটিভ প্রেজেন্টেশন দেখে স্যার কিছু নম্বর দিতে বাধ্য হন।

(৩) কমন পড়ুক বা না পড়ুক তা উত্তর করার কিছু কমন স্ট্র্যাটেজি রপ্ত করতে হবে। তাই প্রতি চ্যাপ্টারের উপর একটা সামারি টাইপ প্রিপারেশন রাখতে পারেন। এক একটা চ্যাপ্টার ধরে খাতায় ৫-৭ পৃষ্ঠায় সামারি রাখলে ভালো হয়। যেন পরীক্ষায় কোন প্রশ্নই অজানা মনে না হয়। তবে বলে রাখি, এ কাজটি বেশ সময়সাধ্য! আমি প্রথমবার রিটেন দেবার সময় এ কাজগুলো করি নি। তার পরিবর্তে ঐ সামারি লাইনগুলো গাইডে হাইলাইটার দিয়ে মার্ক করে রাখতে পারেন। তাতে রিভিশন দিতে সহজ হবে।

(৪) কোটেশন, ডেটা, বাংলাদেশের ম্যাপ, চার্ট, গ্রাফ, বুলেট পয়েন্ট ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন। বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা হতে টপিক ওয়াইজ তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট হতে স্লোগান, ডেটা, চলমান কার্যক্রম সংগ্রহ করতে পারেন। পরীক্ষার খাতায় এগুলো নীল কলমে উপস্থাপন করতে পারেন। বাংলাদেশ বিষয়ে আমার করা কিছু নোট পোস্টের সাথে সংযুক্ত করে দিলাম।

(৫) প্রতিদিন একনজরে পত্রিকা পড়তে পারেন। থার্টি মিনিটস ইজ ইনাফ! এতে অনেক বিষয়ে অটো আপডেট থাকবেন। তাছাড়া কোন ডেটা বা সমৃদ্ধ লেখা পেলে কেটে রাখুন। অথবা আপনি প্রতি মাসের ওরাকল জ্ঞানপত্র পড়তে পারেন।

(৬) এ পরীক্ষায় টাইম মেজারমেন্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগে থেকেই মডেল এক্সাম দিয়ে সময় ঠিক করে নিতে হবে। যাই পারেন না কেন, ফুল আন্সার করে আসবেন।

শুভ কামনায়

সাইফুল হুদা নাজাত

৩৭ তম বিসিএস (প্রশাসন)  

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড