• সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে হারল সাকিবের ঢাকা

বিসিবি
ব্যাটিংয়ে ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান; ছবি: (বিসিবি)

টানা তিন ম্যাচ হেরেছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। বিপিএলের শেষ চারে নিজেদের জায়গা করে নিতে শেষ দুই ম্যাচে জয়ের বিকল্প ছিল না দলটির। গেল বারের রানারআপ দলটি কি জানতো আজকের ম্যাচেও হারবে? মনে হয় যেন 'ভূত' ভর করেছে সাকিবদের শিবিরে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সঙ্গে হেরেছে মাত্র ১ রানে! 

কপাল পুড়লে যা হয়। টসে জিতে বোলিং করে অল্প রানে বেঁধে ফেলেছিল কুমিল্লাকে। কিন্তু কে জানে এই অল্প রান তুলতে রসাতলে পড়তে হবে সাকিবদের। ইমরুল কায়েসদের দেওয়া ১২৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শেষ ওভারের শেষ বলে হেরেছে ঢাকা। 

নাটকীয় শেষ ওভার। জয়ের জন্য ঢাকার ৬ বলে দরকার ছিল ১২ রান। ওভারে ছিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। আর ব্যাটিংয়ে ছিলেন উইন্ডিজ তারকা আন্দ্রে রাসেল ও টাইগার পেসার রুবেল হোসেন। সাইফের করা ওভারের প্রথম বলেই আউট হয়েছেন রুবেল। তার বিদায়ের পর উইকেটে আসেন শাহাদাত হোসেন রাজীব। দেখে শুনেই সাইফের দ্বিতীয় বলটি খেলে একটি রান নিলে উইকেটে আসেন রাসেল। তখনও ঢাকার দর্শকরা জয়ের স্বপ্ন দেখছিলেন। তৃতীয় এবং চতুর্থ বলটি ঠেকিয়ে পঞ্চম বলটি কাজে লাগিয়ে ছক্কা হাঁকান। ম্যাচ গড়ায় শেষ বলে, দরকার ৬ রান। এই শেষ বলেই স্বপ্ন ভঙ্গ হয় ঢাকার। চারের একটি বাউন্ডারি হলেও জয়ে জন্য ২ রানে পিছিয়ে থাকায় শেষ পর্যন্ত ১ রানে হারতে হয়েছে সাকিব-রাসেলদের।

কুমিল্লার দেওয়া অল্প রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় ঢাকা। মেহেদী হাসানের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে ফেরেন উপুল থারাঙ্গা। পর পরই মিজানুর রহমানকে তুলে নিয়ে ধাক্কা দেন মোশাররফ হোসেন। এর জের না কাটতেই রনি তালুকদারকে সরাসরি বোল্ড করে চাপে ফেলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

দলীয় ১৭ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ঢাকা। শুরুর এই বিপদ কেটে না উঠতেই অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে বোল্ড করে ফিরিয়ে চাপটা আরও বাড়িয়ে দেন মেহেদি।

পরে কাইরন পোলার্ডকে নিয়ে খেলা ধরেন সুনিল নারাইন। প্রথমে ধীর-লয়ে হাঁটেন তারা। ক্রিজে সেট হলে ছোটাতে শুরু করেন স্ট্রোকের ফুলঝুরি। এতেই ঘটে বিপত্তি। শহীদ আফ্রিদির বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে ওয়াহাব রিয়াজের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ফেরার আগে ২৪ বলে ২ চারে সংগ্রামী ২২ রান করেন এ ক্যারিবিয়ান।

নারাইন ফিরলে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান কাইরন পোলার্ড। ফলে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে ঢাকা। কিন্তু মুহূর্তেই সেই স্বপ্নে বিশাল ধাক্কা দেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। পরপর দুই বলে সেট ব্যাটসম্যান পোলার্ড ও নুরুল হাসানকে ফিরিয়ে দেন তিনি। এতেই জয়ের সম্ভাবনা চূড়ান্ত হয় কুমিল্লার।

এএপি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড