• সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে রংপুরকে ২ রানে হারাল ঢাকা

  অধিকার ডেস্ক    ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫৫

ঢাকা ডায়নামাইটস-রংপুর রাইডার্স
রংপুরের বিপক্ষে ২ রানের নাটকীয় জয় পেল ঢাকা (ছবি : সংগৃহীত)

পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দুই দলের ম্যাচ। গেল আসরের দুই ফাইনালিস্টের ম্যাচও বটে। রঙ বদলাল ক্ষণে ক্ষণে। এক মুহূর্তে বাজির দর ঢাকা ডায়নামাইটসের দিকে তো আরেক মুহূর্তে রংপুর রাইডার্সের দিকে। শেষ পর্যন্ত নানা নাটকীয়তার পর মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুরের বিপক্ষে ২ রানের রুদ্ধশ্বাস জয় তুলে নিল সাকিব আল হাসানের ঢাকা।

শুক্রবারের প্রথম ম্যাচে মিরপুরে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ঢাকা ডায়নামাইটসের করা ৯ উইকেটে ১৮৩ রানের জবাবে রংপুর রাইডার্সের ইনিংস থামে ৯ উইকেটে ১৮১ রানে রানে। ঢাকার পক্ষে হ্যাটট্রিকসহ ৪ উইকেট নেন বিপিএল তথা টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটে অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা ডানহাতি স্পিনার আলিস আল ইসলাম।

 

১৮৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জয়ের পথেই এগোচ্ছিল বর্তমান বিপিএল চ্যাম্পিয়ন রংপুর। এক পর্যায়ে ৮ উইকেট হাতে নিয়ে শেষ ৫ ওভারে তাদের দরকার ছিল মাত্র ৪২ রান। কিন্তু এমন সুবিধাজনক অবস্থান থেকে পা হড়কায় রংপুর। দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা রাইলে রুশোর বিদায়ের পর ম্যাচের মোড় ঘুরে যায়।

২৫ রানের মধ্যে ক্রিস গেইল-মেহেদী মারুফের উইকেট হারানোর পর জুটি বেঁধেছিলেন রুশো ও মিঠুন। ১২ ওভারে দুজনে মিলে যোগ করেন ১২১ রান। বাঁহাতি রুশো ৪৪ বলে ৮৩ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন। তার ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ৪টি ছয়।

১৬তম ওভারের প্রথম বলে রুশোকে আউট করার পর ১৮তম ওভারে হ্যাটট্রিকের অবিশ্বাস্য কীর্তি গড়েন আলিস। মাঝের ওভারে ইংলিশ তারকা রবি বোপারাও থিতু হওয়ার আগে বিদায় নেন সাকিবের শিকার হয়ে।

২২ বছর বয়সী স্পিনার আলিসের এটিই বিপিএলে প্রথম ম্যাচ। আর তাতেই বাজিমাত করেন তিনি। ১৮তম ওভারের শেষ তিন বলে আলিস একে একে ফেরান মিঠুন, মাশরাফি ও ফরহাদ রেজাকে। মিঠুন ৩৫ বলে ৪৯ রানের ইনিংস খেলেন। বাকি দুজন গোল্ডেন ডাক মারেন।

পরের ওভারে সুনিল নারিন সাজঘরে পাঠান সোহাগ গাজী ও বেনি হাওয়েলকে। তাতে জয়ের খুব কাছে পৌঁছে যায় সাকিব বাহিনী। শেষ ওভারের সমীকরণ দাঁড়ায় এমন, জয়ের জন্য ঢাকার দরকার ১ উইকেট, রংপুরের দরকার ১৪ রান। আর সাকিব বল তুলে দেন ব্যক্তিগত আগের ওভারেই হ্যাটট্রিক করা আলিসকে।

শেষ ওভারের প্রথম দুই বলে দুই চার মেরে ফের ম্যাচ জমিয়ে তোলেন রংপুরের পেসার শফিউল ইসলাম। ম্যাচের ভাগ্য তখন ফের হেলতে শুরু করেছিল তাদের দিকে। কিন্তু পরের তিন বল থেকে আসে মাত্র ২ রান। তাতে শেষ বলের জয়ের জন্য ৪ রান প্রয়োজন দাঁড়ায় রংপুরের। কিন্তু আলিসের ওই ডেলিভারিতে ১ রানের বেশি নিতে পারেননি শফিউল।

ব্যাটসম্যানরা বড় স্কোর দাঁড় করিয়ে দিলেও ঢাকার ২ রানের এই অসাধারণ জয়ের মূল কারিগর আলিস। ৪ ওভারে ২৬ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট নেন তিনি। ফলে ম্যাচসেরার পুরস্কারটা উঠেছে তার হাতেই।

এর আগে শুরুতে ৩ উইকেট হারিয়ে ধাক্কা খেয়েছিল ঢাকা ডায়নামাইটস। তবে কিয়েরান পোলার্ড উইকেটে এসে বদলে নেন ম্যাচের চেহারা। তাণ্ডব চালান রংপুর রাইডার্সের বোলারদের ওপর। তার ২৬ বলে ৬২ রানের ইনিংসে ভর দিয়ে চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করিয়েছিল ঢাকা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ঢাকা ডায়নামাইটস : ১৮৩/৯ (২০ ওভারে) (জাজাই ১, নারিন ৮, রনি ১৮, সাকিব ৩৬, মিজানুর ১৫, পোলার্ড ৬২, রাসেল ২৩, শুভাগত ৩, সোহান ৪, রুবেল ১* ; মাশরাফি ১/২২, সোহাগ ২/২৮, শফিউল ৩/৩৫, হাওয়েল ২/২৫, ফরহাদ রেজা ১/৩২, নাজমুল ০/৩৪)

রংপুর রাইডার্স : ১৮১/৯ (২০ ওভারে) (গেইল ৮, মারুফ ১০, রুশো ৮৩, মিঠুন ৪৯, বোপারা ৩, হাওয়েল ১৩, মাশরাফি ০, ফরহাদ রেজা ০, সোহাগ ০, শফিউল ১০*, নাজমুল ১*; রাসেল ১/২৬, রুবেল ০/২৬, শুভাগত ১/২৭, সাকিব ১/৩৫, নারিন ২/৪০, আলিস ৪/২৬)।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড