• শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মিডল অর্ডারের ব্যর্থতাই ঢাকার পরাজয়ের কারণ

  ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৩ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:১২
ঢাকাকে হারিয়ে প্লে-অফে চট্টগ্রাম
ঢাকাকে হারিয়ে প্লে-অফে চট্টগ্রাম (ছবি : সংগৃহীত)

প্রায় শেষের পথে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের বিশেষ আসর বঙ্গবন্ধু বিপিএল। টুর্নামেন্টের একমাত্র এলিমেনেটরে ঢাকা প্লাটুনকে হারিয়ে কোয়ালিফায়ার নিশ্চিত করেছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। ড্রাফটে সর্বোচ্চ অর্থ ব্যয়ে সবচেয়ে শক্তিশালী দল গঠন করে ঢাকা। কিন্তু কাগজে কলমে যতটা শক্তিশালী ছিল মাঠের লড়াইয়ে ঠিক ততটা শক্তি প্রমাণ করতে পারেনি রাজধানীর দলটি। তাই তো চট্টগ্রামের কাছে হেরে ছিটকে পড়েছে মাশরাফি-তামিমের দলটি।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে খেলতে নেমে প্রথমেই চট্টগ্রামের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর কাছে টসে হারে। আর এই টস পরাজয়কে ম্যাচ পরাজয়ের বড় কারণ হিসেবে দেখছে ঢাকার অধিনায়ক মাশরাফি। ম্যাচ শেষে তিনি টস প্রসঙ্গে বলেন, ‘টস পরাজয়টা আসলে ম্যাচের ওপর ভালো প্রভাব ফেলেছে।’ সে সঙ্গে দলের মিডল অর্ডার এর কারণেও জয় নিশ্চিত করতে পারেনি তারা। এমনটাই মনে করেন ঢাকার কাপ্তান।

মাশরাফি এর আগেও বলে আসছেন ঢাকার মিডল অর্ডারের ব্যাপক সমস্যা রয়েছে। ম্যাচের শুরু দিকে ওপেনাররা বা পরের জুটিগুলো বড় কোনো স্কোর গড়ে না দিতে পারলে রান স্বল্পতায় ভুগে ঢাকা। আজও তার প্রামণ মিলেছে। মাত্র ১৫ রানে ভাঙে ঢাকার ওপেনিং জুটি। ৩ রান করে সাজঘরে ফিরেন ঢাকার সেরা ব্যাটসম্যান তামিম। দলীয় ২৮ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে দলটি মূল লড়াই থেকে ছিটকে যায়। এরপর বরাবরের মতো আজও ছিল তাদের মিডল অর্ডার ব্যর্থতা।

মেহেদী, জাকির, আসিফ কেউই ভূমিকা না রাখতে পারলে বিপাকে পড়ে ঢাকা। তবে শেষ দিকে পেরেরা ও সাদাক খানের ব্যাট ঢাকাকে ম্যাচ ফিরালেও জয় নিশ্চিত করার মতো রান এনে দিতে পারেনি। অষ্টম উইকেট জুটিতে ঢাকাকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তুলেন শাদাব খান ও থিসারা পেরেরা। দুইজনের ৪৪ রানের জুটি মোটামুটি একটা সংগ্রহ এনে দেয়। শাদাবের অপরাজিত ৬৪ রানই ঢাকার ভরসা হয়ে দাঁড়ায়।

তবে ঢাকার দেওয়া ১৪৫ রানের লক্ষ্যটা যেন চট্টগ্রামের সামনে নিতান্তই কম হয়ে গেছে। কারণ ক্রিস গেইল, জিয়াউর রহমান ও দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ইমরুল কায়েস হেসেখেলেই টপকে যেতে পারবেন এমন ইনিংস। আর সেটাই হলো। চট্টগ্রামের ওপেনিং জুটির ৪২ রান ম্যাচটি বেশ সহজ করে তুলে। জিয়ার ২৫ রানের ঝড়ো ইনিংসের এরপর ইমরুলের ৩২ আর গেইলের ঠান্ডার মাথার ৩৯ রানের ইনিংস সমীকরণ সহজ করে দেয়। শেষ পর্যন্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর অপরাজিত ৩৪ জয় নিশ্চিত করে চট্টগ্রামের।

ম্যাচের দিকে লক্ষ করলে দেখা যায় ঢাকার জয় পাওয়ার মতো এমন কোনো অবস্থাই তৈরি করতে পারেনি। ব্যাটনম্যানদের ব্যার্থতার পাশাপাশি বোলাররাও বল হাতে নিজেদের প্রমাণ করতে পারেননি। তবে ঢাকার প্রাপ্তি ছিল ১৪ সেলাই নিয়ে অধিনায়ক মাশরাফির মাঠে নামা। সে সঙ্গে শাদাব খানের সঙ্গে মাশরাফির ৪০ রানের জুটি ও এক হাতে গেইলের ক্যাচ ধরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ফল : ৭ উইকেটে জয়ী চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

ঢাকা প্লাটুন ইনিংস : ১৪৪/৮ (২০ ওভার)

(তামিম ৩, মুমিনুল ৩১, এনামুল ০, রিসি ০, মেহেদী হাসান ৭, জাকের আলী ০, শাদাব ৬৪*, আসিফ আলী ৫, থিসারা ২৫, মাশরাফি ০; রুবেল হোসেন ২/৩৩, রানা ০/২৯, নাসুম আহমেদ ২/১১, মাহমুদউল্লাহ ১/৫, এমরিত ৩/২৩, জিয়াউর রহমান ০/৩৯)।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ইনিংস : ১৪৭/৩ (১৭.৪ ওভার)

(গেইল ৩৯, জিয়াউর ২৫, ইমরুল ৩২, মাহমুদউল্লাহ ৩৪*, ওয়ালটন ১২*; মাশরাফি ০/৩৩, মেহেদী হাসান ১/২০, হাসান মাহমুদ ০/৩৫, রিসি ০/১০, থিসারা ০/১৪, শাদাব ২/৩২)।

ম্যাচ সেরা : রায়াদ এমরিত (চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স)।

ওডি/এসএম

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড