• মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

নতুন বইয়ের বার্তা

গ্রন্থমেলায় মোহনা সেতুর প্রথম উপন্যাস

প্রচ্ছদ
ছবি : মোহনা সেতু এবং (প্রচ্ছদ : উপন্যাস ‘ঐশী’)

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় ঘাসফুল প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয়েছে মোহনা সেতুর উপন্যাস ‘ঐশী’। এই উপন্যাসটি তার প্রথম প্রকাশিত উপন্যাস। 

‘ঐশী’ একটা নারী চরিত্রের নাম। শুধু এটুকু বললে ভুল হবে। ‘ঐশী’ এক যোদ্ধার নাম। প্রতিনিয়ত সমাজের সাথে যুদ্ধ করে যে এগিয়ে চলে। সেবক ঐশীর ধীরে আসে প্রেম, ধীরে গড়ায় বর্তমান আর খুব ধীরে আসে ভবিষ্যৎ । ঐশী, যে প্রতিনিয়ত তাঁর সংসার গড়ার স্বপ্নটাকে বড় করে। কিন্তু অত্যন্ত সাম্প্রদায়িক দেশে অসাম্প্রদায়িক চেতনা তখনো মাথা তুলে ওঠেনি। হিন্দু, মুসলিম, খ্রিস্টান ব্যবধানে বলি হয় তারা । পুঁজিবাদ সমাজের আঘাতে জর্জরিত হতে হয় প্রতিনিয়ত। রাজনীতির নাম করে চ্যালাচুলারা যেভাবে গরীবদের রক্তচোষে জোঁকের ভূমিকায়, গরীবেরা বলবানের পদতলে দলায়মলায় হয় যেভাবে তা এই উপন্যাসে স্পষ্ট।

‘ঐশী’র শুরুটাও সুন্দরভাবেই। অবাক করা বিষয় অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের একটা মেয়ে এরকম শব্দ চয়ন, ভাব প্রকাশ কিভাবে করতে পারে! তা ঐশি না পড়লে বোঝা যাবেনা। এই উপন্যাসে উঠে এসেছে সমাজের রুঢ় বাস্তবতা। মাটির কথা, সাম্প্রদায়িক শক্তির আস্ফালন এবং সম্প্রীতির নমুনাও। নারীর জীবনে কতটা ‘ঠোক্কর’ খেতে হয় তার অবয়ব জীবনধারায় উঠে এসেছে। সবকিছু ছাপিয়ে ভালোবাসার গভীররূপ টুকু ধরা পড়েছে লেখকের কলমে। মনের ভ্রান্তির অসম প্রেমের ধারার গল্পে মোড়ানো ‘ঐশী’। বাঙালী সংগ্রামী এক নারীর পথচলা, ঠেকে, ঠকে উত্থান পতন সবই যেন বাস্তব জীবনেরই দর্পণ। শব্দ চয়নে কোনো কাঁচি-কুঁচি নেই, যেটা যখন দরকার প্রয়োজনমত ব্যবহার করেছেন লেখক। সাধারণ আট দশটা মানুষের আদিম কু-রিপুর আস্ফালন কলমের ডগায় উঠিয়ে আনা চাট্টিখানি কথা নয়। আমাদের সমাজে এমন অসংখ্য ঐশী ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। সব ঐশীদের গল্প আমাদের জানা নেই। নতুন লেখকদের বইয়ে মোহাচ্ছন্ন করার ক্ষমতা দেখিনি। এই বইতে সেটা পেলাম। ‘ঐশী’ উপন্যাস সবার মনে দাগ কাটবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

সম্প্রতি রাজধানীর লালমাটিয়ার টাইম স্কয়ার কনভেনশন সেন্টারে ঐশীর মোড়ক উন্মোচন করেছেন কবি আসাদ চৌধুরী। অমর একুশে গ্রন্থমেলায় স্টল নং ৬১২ ঘাসফুল প্রকাশনে পাওয়া যাচ্ছে উপন্যাসটি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড