• শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন

গ্রন্থমেলার সংবাদ

বুদ্ধিজীবী আবদুল হক এর জন্মশতবর্ষ শ্রদ্ধাঞ্জলি

  অধিকার ডেস্ক    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮:৫৮

ছবি
ছবি : বুদ্ধিজীবী আবদুল হক

অমর একুশে গ্রন্থমেলার নবম দিন গতকাল (৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেল চারটায় গ্রন্থমেলায় অনুষ্ঠিত হলো আবদুল হক এর জন্মশতবর্ষ শ্রদ্ধাঞ্জলি শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সুব্রত বড়ুয়া। আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ সৈয়দ আজিজুল হক, অজয় দাশগুপ্ত, সোহরাব হাসান এবং আহমাদ মাযহার। 

অনুষ্ঠানে আবদুল হক সম্পর্কে  সৈয়দ আজিজুল হক বলেন, ‘একজন সার্থক মননশীল প্রাবন্ধিকের চিন্তনপ্রক্রিয়াকে অনিবার্যভাবে যেমন হতে হয় যুক্তিশৃঙ্খলিত তেমনি তার আবেগ-অনুভূতিকেও বাঁধতে হয় বুদ্ধির শাসনে। সাহিত্য ও সমাজ-সংস্কৃতি বিষয়ে বিশ্লেষণে আগ্রহী একজন প্রাবন্ধিককে গভীরভাবে উপলব্ধি করতে হয় সাহিত্যের যাবতীয় গতি-প্রকৃতির পাশাপাশি তার দেশকালের সংকট ও তার উত্তরণমুখী সুদূরপ্রসারী সম্ভাবনাকে। এভাবে তিনি একটি জাতির সামগ্রিক সুখ-দুঃখ, আনন্দ- বেদনার সঙ্গে একাত্ম হন, ব্যাপৃত হন আপন জাতিসত্তার স্বরূপ সন্ধানে। যিনি প্রকৃত মনীষী তিনি কালের কাঠামোর মধ্যে থেকেও হয়ে ওঠেন যুগন্ধর ও কালোত্তর প্রতিভার অধিকারী। ‘কলমসৈনিক’ হিসেবে খ্যাত আবদুল হক বাংলাদেশের সেরকমই শ্রেষ্ঠ চিন্তাবিদদের একজন। তিনি বাংলাদেশের জাতীয় রাজনীতির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুটি ঘটনার- ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের ক্ষেত্রে অগ্রণী, দূরদর্শী ও দায়িত্বশীল চিন্তকের পরিচয় দিয়েছেন।’

সভাপতির বক্তব্যে সুব্রত বড়ুয়া বলেন, ‘আবদুল হক একজন সত্যসন্ধ বুদ্ধিজীবী। তার নাট্যরচনা, অনুবাদ, দিনলিপি, প্রবন্ধ গবেষণা-সবকিছুর মধ্যেই বড় করে প্রতিভাত হয়েছে দেশপ্রেম, উদার মানবিকতা এবং নিরাপোষ মনোভাব। জন্মশতবর্ষে তাঁকে নিয়ে নতুন করে আলোচনার অবকাশ রয়েছে।’ 

আলোচকবৃন্দরা আরো বলেন, ‘বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন ও একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ-উভয় ক্ষেত্রেই আবদুল হক প্রদর্শন করেছেন বুদ্ধিজীবীতার দায়বোধের চূড়ান্ত আদর্শ। তাঁর চিন্তার স্বচ্ছতা, দূরদর্শিতা ও দেশপ্রেমের উৎকৃষ্ট দৃষ্টান্ত হয়ে আছে এ বিষয়ক প্রবন্ধাবলি। তাঁর প্রবন্ধসমূহে সর্বদাই অভিব্যক্ত হয়েছে এদেশের সাহিত্য, সংস্কৃতি, সমাজ ও রাজনীতি নিয়ে গভীরতর বিশ্লেষণমূলক অনুভাবনা। ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, সমাজ ও রাজনীতি বিষয়ে আবদুল হকের সুগভীর চিন্তাভাবনাকে পাঠককুলের বোধের কাছে যত বেশি পৌঁছে দেওয়া যাবে সমাজ ও জাতির জন্য তত বেশি তা ইতিবাচক ও কল্যাণময় ফল বয়ে আনবে। আবদুল হকের বুদ্ধিবৃত্তিক সাধনার বিস্তার আমাদের একান্তভাবে কাম্য।’ 

আজ ১০ ফেব্রুয়ারি। অমর একুশে গ্রন্থমেলার দশম দিন। আজ মেলা শুরু হবে বিকাল তিনটা থেকে। চলবে রাত নয়টা পর্যন্ত। এছাড়াও বিকাল চারটায় বাংলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হবে কথাশিল্পী অমিয়ভূষণ মজুমদারে এর জন্মশতবর্ষ শ্রদ্ধাঞ্জলি শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন সেলিনা হোসেন। এবং সন্ধ্যায় থাকবে কবিকণ্ঠে কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড