• বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

সালমান হত্যা মামলার তদন্তে ব্যর্থ পিবিআই!  

  অধিকার ডেস্ক    ১৯ মার্চ ২০১৯, ১০:৫২

সালমান শাহ্‌
জনপ্রিয় চিত্রনায়ক প্রয়াত সালমান শাহ্‌ (ছবি : ফাইল ফটো)

জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সালমান শাহ্‌ হত্যা মামলার বিচার কার্যক্রমের এখন পর্যন্ত কোনো সমাধান মেলেনি। মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল সোমবার (১৮ মার্চ)। তবে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ফের পিছিয়ে আগামী ২৩ এপ্রিল পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।      

সোমবার মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ নতুন এই দিন ধার্য করেন। 

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৬ ডিসেম্বর আলোচিত এ মামলা তদন্ত করতে পিবিআইকে নির্দেশ দেন আদালত। এরপর থেকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম তদন্ত শুরু করেন। 

তিনি তদন্ত শুরুর পর দশজন সাক্ষীকে জিজ্ঞাসাবাদ ও একজন সাক্ষীর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করিয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদ করা সাক্ষীরা হলেন- প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহের মা নিলুফা চৌধুরী ওরফে নীলা চৌধুরী, ঘটনার সময়ের সাক্ষী হুমায়ুন কবির, আ. সালাম, দেলোয়ার হোসেন শিকদার, আ. খালেক হাওলাদার, বাদল খন্দকার (চলচ্চিত্র পরিচালক), শাহ আলম কিরণ (চলচ্চিত্র পরিচালক), মুশফিকুর রহমান গুলজার, এস এম আলোক সিকদার ও হারুন অর রশিদ। নারাজির আসামি রুবির ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করেছেন। ২০১৭ সালের ১৯ নভেম্বর সালমান শাহের মামা আমেরিকা প্রবাসী আলমগীর কুমকুম জবানবন্দি সাক্ষী হিসেবে আদালত কর্তৃক রেকর্ড করিয়েছেন।

পিবিআই তদন্তাধীন অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়ায় থাকা এ মামলার নারাজির আসামি রাবেয়া সুলতানা রুবি ২০১৭ সালের ৭ আগস্ট ফেসবুকে এক ভিডিওবার্তায় সালমান শাহর মৃত্যু নিয়ে কথা বলেন, যা ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ওই ভিডিওবার্তায় রুবি বলেছেন, “সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই। সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে মর্মে উল্লেখ করেন।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সালমান শাহের ১১/বি নিউ ইস্কাটন রোডের ইস্কাটন প্লাজার বাসায় নিজ কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাকে প্রথমে হলি ফ্যামেলি পরে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এর আগে মামলাটির বিচার বিভাগীয় তদন্তের ওপর নারাজির পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৫ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা সিএমএম আদালত র‌্যাবকে মামলাটি পুনঃতদন্তের নির্দেশ দেয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ রিভিশন করলে র‌্যাবকে দেওয়া তদন্তের আদেশ বেআইনি ঘোষণা করা হয়। 

সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরী নারাজিতে মাফিয়া ডন আজিজ মোহাম্মাদ ভাইসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। অপর ১০ জন হলেন,-সালমান শাহের স্ত্রী সামিরা হক, সামিরার মা লতিফা হক লুসি, রেজভী আহমেদ ওরফে ফরহাদ, এফডিসির সহকারী নৃত্য পরিচালক নজরুল শেখ নজরুল শেখ, ডেভিড, আশরাফুল হক ডন, রাবেয়া সুলতানা রুবি, মোস্তাক ওয়াইদ, আবুল হোসেন খান ও গৃহপরিচারিকা মনোয়ারা বেগম।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড