• শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাবার পর আক্রান্ত ছেলে অভিষেক

  বিনোদন ডেস্ক

১২ জুলাই ২০২০, ১০:৩৮

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন।

সেই দুঃসংবাদের ভার সামলানোর আগেই জানা গেল, অমিতাভ বচ্চনের ছেলে জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতা অভিষেক বচ্চনও করোনায় আক্রান্ত।

নিজের করোনা আক্রান্তের খবর টুইটারে জানিয়েছেন অভিষেক নিজেই।

তিনি লিখেছেন, আজ সকালে আমি ও আমার বাবা দুজনের শরীর কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। আমরা দুজনেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। আমি অনুরোধ করছি এই কয়দিনে আমাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেস, তারা করোনা টেস্ট করিয়ে নিবেন। আর আপনারা কেউ উদ্বিগ্ন না হয়ে শান্ত থাকুন। ধন্যবাদ।

অভিষেকের আগে অমিতাভ বচ্চন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর আসে।

নিজের করোনা পজিটিভের খবর টুইটারে শেয়ার করে অমিতাভ লেখেন, আমি করোনা আক্রান্ত হয়েছি। হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে পরিবারের সবাইকে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। ওরা করেছে। তবে এখনও ফল পায়নি। গত ১০ দিনে যারা আমার সংস্পর্শে এসেছেন, তারা দয়া করে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নিন।’

ভারতের সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটিন ও হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, অমিতাভ ও অভিষেক বচ্চনকে শনিবার রাতে মুম্বাইয়ের ভিলে পার্লের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । জুহুতে বিগ বির বাড়ি থেকে সবচেয়ে কাছেই এই নানাবতী হাসপাতাল। তাই কোনো রিস্ক নিতে চাননি পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে বর্ষীয়ান অভিনেতা অমিতাভের সুস্থতায় প্রার্থনা চেয়ে টুইট করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

অমিতাভের বাড়িতে কি করে করোনার হানা পড়ল সে বিষয়ে ভারতের সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমাতে লকডাউন চলাকালে পুরা সময়টাই নিজ বাড়িতে থাকলেও সম্প্রতি জনপ্রিয় টিভি শো ‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি’র প্রচারসহ কয়েকটি প্রোজেক্টের জন্য শুটিং করেন। সেই সময় প্রোডাকশন বিভাগের কয়েকজন তার বাড়িতে আসেন। তাদের থেকেই তিনি সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড