• বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সেভ দ্য চিলড্রেনের শুভেচ্ছা দূত বিপাশা হায়াত

  বিনোদন ডেস্ক

০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৪৩
বিপাশা
চুক্তিতে স্বাক্ষর করছেন বিপাশা হায়াত ও সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্ক পিয়ের্স (ছবি : সংগৃহীত)

সারা বিশ্বের শিশুদের অধিকার রক্ষায় কাজ করে ‘সেভ দ্য চিলড্রেন’। আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেনের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে মনোনীত হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী, পরিচালক ও চিত্রশিল্পী বিপাশা হায়াত।

সেভ দ্য চিলড্রেন ঢাকার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রবিবার (১ ডিসেম্বর) সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি অফিসে এমওইউ স্বাক্ষরের মাধ্যমে দু’পক্ষের মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। সেভ দ্য চিলড্রেনের পক্ষ থেকে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন সংস্থাটির বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্ক পিয়ের্স।

এই সংস্থাটি বাংলাদেশে গত প্রায় পঞ্চাশ বছর যাবত এবং বিশ্বব্যাপী ১০০ বছর যাবত উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছে।

এ বিষয়ে বিপাশা হায়াত জানান, আমি বহুদিন আগে থেকেই সুবিধাবঞ্চিত শিশু, পথশিশু ও নির্যাতিত শিশুদের জন্য কাজ করতে আগ্রহী ছিলাম। আমি যেদিন থেকে আমার ভেতরে আরেকটি শিশুকে ধারণ করেছি, সেদিন থেকে শিশুদের প্রতি আমার যে দৃষ্টিভঙ্গি, মমতা তৈরি হয়েছে তা কেবল আমার নিজের সন্তানদের জন্য নয়, সব শিশুদের জন্যই। সেভ দ্য চিলড্রেন শিশুদের জন্য অতীতে যা করেছে, বর্তমানে যা করছে এবং ভবিষ্যতে যা করবে, আমি-আমরা সবাই তাদের পাশে থাকব।

৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে সেভ দ্য চিলড্রেনকে শুভ কামনা জানিয়েছেন বিপাশা হায়াত।

সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্ক পিয়ের্স বলেন, শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের জীবনে সুফল বয়ে আনতে সেভ দ্যা চিলড্রেন প্রায় ৫০ বছর যাবত বাংলাদেশে উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছে। আমাদের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে বিপাশা হায়াতকে আমরা একই উদ্দেশ্যে কাজ করতে স্বাগত জানাচ্ছি। আমাদের বিশ্বাস তার প্রতিশ্রুতি এবং কণ্ঠস্বর শিশুদের জন্য উন্নত বাংলাদেশ তৈরি করতে সহায়তা করবে।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড